থাইল্যান্ডের কর্তৃপক্ষ ব্যাঙককে নতুন বন্যার সম্ভাবনা সম্বন্ধে সতর্ক করে দিচ্ছে. উত্তরের আয়ুত্তাইয়া প্রদেশের বন্যার জল শহরের দিকে আসছে, এবং তা সরানো সম্ভব হচ্ছে না, জানিয়েছে স্থানীয় প্রচার মাধ্যম. ব্যাঙককের গভর্নর সুখুমভান পরিবাতা রাজধানীর উত্তরাঞ্চল থেকে লোকেদের অপসারণের নির্দেশ দিয়েছেন. “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থা তাঁর কথা উদ্ধৃত করেছে, “আমি এই প্রথম “অপসারণ” কথাটি ব্যবহার করছি, এই প্রথম আমি আপনাদের শহর ছেড়ে যেতে একান্ত অনুরোধ করছি”. ব্যাঙককের একাদিক সুপারমার্কেটে বোতলের পানীয় জলের এবং খাদ্যদ্রব্যের অভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে, লিখেছে থাইল্যান্ডে অবস্থিত এক ব্লগার. মাইক্রোব্লগে লেখা হচ্ছে, দোকানে জল এবং খাবার নেই. আছে মিঠে পানীয় এবং  শ্যাওলার চিপ্স. তবে মন মাতানো গানবাজনা শোনা যাচ্ছে. আছে ফলের রস, দুধ, ফল, ২০০ বাটের বিস্কুট, শ্যাম্পু ও ক্রীম, বিয়ার, কুকুর-বিড়ালের টিনবন্দী খাবার. সেই সঙ্গে অ্যালকোহল কেনায় সমস্যা নেই, বারগুলি সাধারণভাবে কাজ করছে. আগে থাইল্যান্ডের কর্তৃপক্ষ পাঁচদিনের ছুটি ঘোষণা করেছিল, য়াতে ব্যাঙকক এবং বন্যাপীড়িত অন্যান্য অঞ্চলেরবাসিন্দারা নিজেদের বাড়ি ছেড়ে যেতে পারে.