ব্যাংককের প্রশাসকেরা নগরীর কেন্দ্রস্থল থেকে জল সরিয়ে বন্যার হাত থেকে রক্ষা করতে ব্যর্থ হচ্ছে. প্রত্যাশা করা হচ্ছে, যে আজ রাজধানীর উত্তর দিকে অবস্থিত আয়ুটাইয়া প্রদেশ থেকে মূল জলস্রোত নগরীতে ঢুকবে. আশংকা করা হচ্ছে, যে ব্যাংককের পশ্চিম দিকে খালের জল তিন মিটার উঠবে. নগরীর মধ্যে দিয়ে বয়ে চলা চাও প্রায়া নদীতে জলস্তম্ভের উচ্চতা এই মুহুর্তে স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় ২,৩ মিটার বৃদ্ধি পেয়েছে. ব্যাংককের পৌর প্রশাসন নদীর তীরে বসবাসকারী লোকেদের হয় ঐ এলাকা পরিত্যাগ করার নতুবা অত্যন্ত সাবধানে থাকার আহ্বাণ জানিয়েছে. নগরীতে খাদ্যদ্রব্য এবং পানীয় জলের দাম সাংঘাতিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে. প্লাস্টিকের বোতল নির্মানকারী কারখানাগুলি জলের তলায় চলে যাওয়ায় গত সপ্তাহ থেকেই দোকানঘাটে পানীয় জল উধাও হয়ে গেছে. গতকাল নগরীর অন্যতম বিমান বন্দর ‘ডোনমুয়ান’ জলে ভেসে গেছে. ২০টিরও বেশি পেট্রোল পাম্প বন্ধ রয়েছে. প্রাপ্ত সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী বন্যায় ৩৫৮ জন মারা গেছে, ১ লক্ষ ১০ হাজার মানুষ গৃহহারা.  ১৪ হাজারেরও বেশি কল-কারখানা জলের তলায়. বন্যায় ক্ষতির পরিমাণ ১ হাজার ৬০০ কোটি ডলারেরও বেশি হতে পারে.