উগ্রপন্থী বিরোধী অভিযান চালানোর জন্য তুরস্কের ২০টি ট্যাঙ্ক ও ৩০টি সাঁজোয়া গাড়ি ইরানের ভূখন্ডে প্রবেশ করেছে. কুর্দী সংবাদসংস্থা ‘ফিরাট’ এই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে. আরও জানানো হয়েছে, যে বিমান বাহিনী সীমান্তবর্তী তুর্কী শহর চুকুর্দা ও উত্তর ইরাকের মধ্যবর্তী এলাকায় তীব্রহারে বোমাবর্ষণ করছে. তুরস্কের পশ্চিমী সেনাবাহিনী গত মাসে কুর্দী শ্রমিক পার্টি তুরস্কের পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর রক্তক্ষয়ী হামলা করার  পরে উগ্রপন্থীদের বিরূদ্ধে অভিযান জোরদার করে তোলে. সেনাবাহিনীর সদর-দপ্তরের প্রধান নাজদেত ওজেল ঘোষণা করেছেন, যে প্রায় ২৭০ জন উগ্রপন্থী ঐ সময় হামলা করে, হতাহতের সংখ্যা ২১০-এর কাছাকাছি.