টিউনিশিয়া 'আরবীয় বসন্তের' জন্ম দিয়েছিল আর এবার আবার নিকট-প্রাচ্যে পথ প্রদর্শকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে. সংকটের উদ্রেক না করেই যে নির্বাচনে জেতা যায়, রক্ষণশীল ঐস্লামিকেরা তা প্রমাণ করছে. প্রাপ্ত প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, গত রবিবারে অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক নির্বাচনে টিউনিশিয়ার 'আন-নাহদা' নামক পার্টি জয়লাভ করছে. ঐ পার্টি নমুনা স্বরূপ তুরস্কের রেজাপ এর্দোগানের রক্ষণশীল পার্টির মতাদর্শ গ্রহন করেছে. স্থিতিশীলতা, সুযোগ্য জীবনযাত্রার মান, আর তার সঙ্গে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার পত্তন মুখ্য কর্তব্য বলে পার্টির শীর্ষনেতা আবদেলহামিদ জেলিয়াসি উল্লেখ করেছেন. সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি ঘোষনা করেছেন, যে স্থিতিশীলতা ফিরে এলে তাদের দেশে আবার বিদেশী পুঁজি বিনিয়োগের বাতাবরন তৈরি হবে. স্থানীয় পর্যবেক্ষকরা ভোটদান শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে. ভোটের এক সপ্তাহ আগে ইসলামিদের ও পুলিশের মধ্যে যে সংঘর্ষ হয়েছিল, তার পুণরাবৃত্তি এবারে হয়নি. বিশ্লেষকদের মতে, 'আন-নাহদা' পার্টি সংসদে সবচেয়ে বেশি আসন পেলেও নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না. সংসদ সদস্যরা নতুন অন্তর্বর্তীকালীন রাষ্ট্রপ্রধানকে বাছাই করবে ও সরকার গড়বে. শুধুমাত্র তারপরেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আয়োজন করা হবে. অনুমান করা হচ্ছে, যে টিউনিশিয়ায় অন্তর্বর্তীকালীন রাজনৈতিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে কমপক্ষে ১ বছর সময় লাগবে.