রাশিয়া জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে লিবিয়ার ওপর নো-ফ্লাই জোন বাতিলের জন্য একটি রেজ্যুলেশনের প্রস্তাব দিয়েছে।যেহুতু নিরাপত্তা পরিষদই লিবিয়ায় নো-ফ্লাই জোন ঘোষণা করেছিল তাই এই সংস্থাকেই তা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিতে হবে।জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন এক বিবৃতিতে এ কথা বলেছেন।তার ভাষায়, লিবিয়ায় নানাদিক থেকে পরিবর্তন এসেছে।আমরা আশা করছি যে,আজ শনিবারই হয়ত নো-ফ্লাই জোন বাতিলের ঘোষণা আসতে পারে।লিবিয়ার সরকারি অস্ত্র ও গোলা বারুদ যেন জঙ্গিদের হাতে না চলে যায় সে বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য  রাশিয়া নিরাপত্তা পরিষদকে আহবান জানিয়েছে।এদিকে ন্যাটোর মহাসচিব আন্দ্রেস ফগ রাসমুসেন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন,লিবিয়ায় ন্যাটোর সামরিক অভিযান হয়ত ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।যদিও ন্যাটো এর আগে দেওয়া এক বিবৃতিতে লিবিয়ায় সামরিক অভিযানকে আরও দীর্ঘ করার ঘোষণা দিয়েছিল,কিন্তু লিবিয়ার নেতা মুহাম্মর গাদ্দাফির মৃত্যু হওয়ার কারণেই অভিযান শেষ করার ইঙ্গিত দেওয়া হয়।এদিকে রাশিয়া মনে করছে যে,সিরাতে মুহাম্মর গাদ্দাফির মৃত্যুর ঘটনার আন্তর্জাতিক তদন্ত হওয়া উচিত।রাশিয়ার পররাষ্ট্র্মন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরোভ রেডিও রাশিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বলেছেন,আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ি গাদ্দাফিকে যখন বিদ্রোহীরা আটক করে তখনই সুনির্দিষ্ট কর্মসূচি গ্রহন করা উচিত ছিল।অন্তত তাকে না মেরে ওই সময় প্রয়োজনীয় সাহায্য দেয়াটাই মূল কাজ ছিল।এদিকে গতকালও গাদ্দাফিকে দাফন করা হয় নি।লিবিয়ার খন্ডকালিন সরকার জানিয়েছে যে,মুসলমানদের প্রথা অনুযায়ি তাকে দাফন করা হবে।তবে কোথায় গাদ্দাফিকে দাফন করা হবে সে বিষয়ে এখনও কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় নি।