মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইয়েমেনের রাষ্ট্রপতি আলি আব্দাল্লা সালেহ-কে অতিরিক্ত গ্যারান্টি দিতে অস্বীকার করেছে, যা তিনি দাবি করেন দেশের শাসনক্ষমতা চূড়ান্তভাবে ত্যাগ করার শর্ত হিসেবে. এ সম্বন্ধে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ সংস্থা. মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি মার্ক টোনারের বিবৃতি উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা লিখেছে, “আমরা মনে করি না যে, অতিরিক্ত গ্যারান্টি দেওয়া প্রয়োজন. আমরা রাষ্ট্রপতি সালেহ-র কাছে দাবি করছি, তিনি যেন নিজের প্রতিশ্রুতি পালন করেন এবং পারস্য উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রগুলির সহয়োগিতা পরিষদের উদ্যোগ স্বাক্ষর করেন”. বিগত কয়েক দিনে ইয়েমেনের রাজধানী সানায় অত্যাচারের ঘটনা ঘন ঘন ঘটছে. সালেহ-র প্রতি বিশ্বস্ত বাহিনী বিরোধীপক্ষের শান্তিপূর্ণ মিছিলের উপর সামরিক অস্ত্র ব্যবহার করছে, জানিয়েছে “ফ্রান্স প্রেস” সংবাদ এজেন্সি. আগে সালেহ সঠিকভাবে বলেন নি, কবে তিনি শাসন ক্ষমতা ত্যাগ করতে প্রস্তুত হবেন. পারস্য উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রগুলির সহযোগিতা পরিষদের প্রস্তাবে বলা হয়েছে যে, উদ্যোগ স্বাক্ষরের ৩০ দিন পরে তা হওয়া উচিত্. আর এ দলিল স্বাক্ষরের ৬০ দিন পরে দেশে রাষ্ট্রপতির নির্বাচন হওয়া উচিত্. সে ক্ষেত্রে জাতীয় ঐক্যের সরকারের নেতৃত্ব করতে পারেন বিরোধীপক্ষের প্রতিনিধি, আর সালেহ এবং তাঁর সহকারীদের বিরুদ্ধে আদালতে কোনো মামলা দায়ের করা হবে না, মনে করিয়ে দিচ্ছে “এ.এফ.পি” সংবাদ সংস্থা.