আরব রাষ্ট্র লীগের সাধারণ সম্পাদক নাবিল আল-আরাবি ইস্রায়েল ও প্যালেস্টিনীয় গোষ্ঠী হামাসের মধ্যে আপোষে যুদ্ধবন্দীদের মুক্তির ঘটনাকে স্বাগত জানিয়েছেন. তিনি ইস্রায়েলের কর্তৃপক্ষের কাছে সব বন্দী প্যালেস্টিনীয়কে কারামুক্তি দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন. – কোনো কোনো বন্দী কারাগারে ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে রুদ্ধ আছে অমানবিক পরিবেশে, কেউ কেউ কারাগারে ঘানি টানছে কোনো বিচার ছাড়াই. এই সবকিছুই আন্তর্জাতিক মানবাধিকারের আইন লঙ্ঘন করে – বলেছেন নাবিল আল-আরাবি. তিনি বিশ্ব জনসমাজের কাছে প্যালেস্টিনীয় কারাবন্দীদের সমস্যার দিকে মনোযোগ দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন, যাতে রেড ক্রসের কর্মীরা তাদের কাছে পৌঁছাতে পারে, সেজন্য আবেদন করেছেন. গত মঙ্গলবার ইস্রায়েলের সেনাবাহিনীর কর্পোরাল হিলাদ শালিদের মুক্তির বিনিময়ে ইস্রায়েল প্রথম দফায় ৪৭৭ জন প্যালেস্টিনীয়কে মুক্তি দিয়েছে. মিশরের মধ্যস্থতায় এই বিনিময় সম্ভব হয়েছে. প্যালেস্টিনীয় পক্ষের তথ্য অনুযায়ী ইস্রায়েলে ৮২০০ প্যালেস্টিনীয় ও অন্যান্য আরব দেশের নাগরিক কারারুদ্ধ আছে. তাদের মধ্যে ৬২ জন নারী এবং দুশোরও বেশি শিশু. অধিকাংশ কারাবন্দীই জর্ডান নদীর পশ্চিম উপকূলের বাসিন্দা. তারা তাদের সাথে কারাগারে অমানবিক আচরণের অভিযোগ করছে.