0চীন ইউয়ানের আপেক্ষিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখবে, যাতে রপ্তানীকারীদের জন্য অননুকূল পরিণতি এড়ানো যায়, বলেছেন চীনের রাষ্ট্রীয় পরিষদের প্রধানমন্ত্রী ভ্যান জিয়াবাও. এটি ছিল উচ্চ পর্যায়ে চীনের প্রথম মন্তব্য মার্কিনী সেনেটের দ্বারা খসড়া আইন অনুমোদনের পরে, যা অতিরিক্ত শুল্ক প্রবর্তনের সুযোগ দেবে চীন এবং অন্যান্য দেশের পণ্যের ক্ষেত্রে, যারা ওয়াশিংটনের মূল্যায়ন অনুযায়ী, নিজেদের জাতীয় মুদ্রার বিনিময় হার নিয়ে কারসাজি করছে. ভ্যান জিয়াবাও ইঙ্গিত দেন যে, বেজিং নিকট ভবিষ্যতে ইউয়ানের হার তীব্রভাবে সুদৃঢ় করার পথে যাবে না. চীনা রপ্তানীকারীরা এমনিতেই কাঠিন্য অনুভব করছে বিশ্ব অর্থনৈতিক বৃদ্ধি মন্থর হওয়ার পটভূমিতে. ভ্যান জিয়াবাও বলেন যে, একই সঙ্গে, বহির্বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলির প্রতি সমর্থনের ব্যবস্থা প্রসারিত হবে. তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, সারা পৃথিবীতে বিকাশের গতি মন্থর হওয়ার এবং পৃথিবীতে প্রধান রিজার্ভ মুদ্রা হিসেবে ডলারের চাহিদার তীব্র বৃদ্ধির পটভূমিতে ইউয়ানের হার এমনকি কমতেও পারে. ২০১০ সালের জুন থেকে, যখন চীন ডলারের সাথে ইউয়ানকে কঠোরভাবে বেঁধে রাখার ব্যবস্থা ত্যাগ করে, চীনের জাতীয় মুদ্রার হার ৭ শতাংশ বেড়েছে.