আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের সদস্য দেশগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা সিরিয়ার নেতৃবৃন্দ ও বিরোধীপক্ষকে আহ্বান জানিয়েছেন সংস্থার কাঠামোতে সংলাপ শুরু করার, যাতে দেশে রক্তক্ষয় বন্ধ করা যায়. লীগ সিরিয়ার সরকার এবং সিরিয়ায় সব বিরোধীপক্ষের সাথে প্রয়োজনীয় যোগাযোগ স্থাপন করবে. লীগ ১৫ দিনের মধ্যে সংস্থার সদর দপ্তরে সিরিয়ায় জাতীয় সংলাপ সম্পর্কে সম্মেলন আয়োজন করতে চায়. এ সম্বন্ধে রবিবার কায়রো-তে বলেছেন কাতারের প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হামাদ বেন জাসেম আল তানি. তিনি পারস্য উপসাগরের আরব রাষ্ট্রগুলির সহয়োগিতা পরিষদের উদ্যোগে আহূত আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের ফলাফল সম্পর্কে বক্তৃতা দেন. এই আন্তঃসিরীয় সংলাপে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ করা হবে যেমন সিরিয়ার ভিতরে, তেমনই তার বাইরে অবস্থিত বিরোধীপক্ষের সমস্ত শাখার প্রতিনিধিদের. সিরিয়ার সরকার ও বিরোধীপক্ষের সাথে যোগাযোগ বজায় রাখার জন্য গঠন করা হচ্ছে মন্ত্রী পর্যায়ের কমিশন, যার নেতৃত্ব করবেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী. এ কমিশনে তাছাড়া অন্তর্ভুক্ত হবে আলজিরিয়া, ওমান, সুদান, মিশরের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এবং আরব লীগের প্রধান সচিব নাবিল আল-আরাবি. আরব দেশগুলি আবার আহ্বান জানিয়েছে সিরিয়ায় হিংসা অবিলম্বে বন্ধ করার. কায়কো-তে লীগের ভবনের কাছে প্রতিবাদ মিছিলের পটভূমিতে লীগের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়. মিছিলকারীরা – মিশরে সিরীয় সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা, এ সংস্থায় ডামাস্কাসের সদস্যপদ সাময়িকভাবে স্থগিত রাখার দাবি করেছে.