মস্কোয় আশা করা হচ্ছে যে, আফগানিস্তানে নিরাপত্তায় সহায়তা করা আন্তর্জাতিক বাহিনীর উপস্থিতি এ দেশে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করায় সাহায্য করবে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দ্বারা প্রকাশিত বিবৃতিতে. বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ একবাক্যে অনুমোদন করেছে ২০১১ নম্বর সিদ্ধান্ত, যাতে আফগানিস্তানে আন্তর্জাতিক মিশনের ম্যান্ডেট এক বছর, ২০১২ সালের ১৩ই অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে. এ দলিল স্থিতিশীল, অর্থনৈতিক দিক থেকে স্বয়ংসম্পূর্ণ, সন্ত্রাসবাদ ও নার্কোটিক থেকে মুক্ত রাষ্ট্র গঠনে আফগানিস্তানের সরকার ও আন্তর্জাতিক জনসমাজের প্রয়াস সমর্থন করে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্তে জোর দিয়ে বলা হয়েছে যে, নিরাপত্তা এবং আইন ও শৃঙ্খলা সুনিশ্চিত করার মুখ্য দায়িত্ব আফগানিস্তানের কর্তৃপক্ষের, মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে. আন্তর্জাতিক বাহিনীর সুনিশ্চিত করা উচিত্ আফগানিস্তানের সৈন্যবাহিনী সম্বলিত বিভাগগুলির কর্মীদের পেশাগত প্রস্তুতি. বর্তমানে আফগান সশস্ত্র বাহিনীর সৈন্যসংখ্যা ১ লক্ষ ৭০ হাজার, আর পুলিশের – ১ লক্ষ ৩৫ হাজার. আফগান পক্ষকে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার দায়িত্ব হস্তান্তরের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার পরিকল্পনা আছে ২০১৪ সালের শেষ দিকে.