0রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা বুধবার সৌদি আরবের রাজা আব্দাল্লা ইবন আব্দেল আজিজ আস-সৌদের সাথে টেলিফোনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এর-রিয়াদের “দূতকে হত্যার পরিকল্পনা সফলভাবে বানচাল করার” বিষয়টি আলোচনা করেছেন. এ ষড়যন্ত্রের আয়োজনে জড়িত থাকার জন্য মার্কিনীরা দোষ দিয়েছে ইরানকে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এ ষড়যন্ত্রের সন্দেহে গ্রেপ্তার করা হয়েছে দুজন ইরানীকে, যারা আমেরিকায় বসবাস করছে এবং নাগরিকত্ব পেয়েছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান অভিশংসক এরিক হোল্ডারের কথায়, ইরানের সরকার এ হত্যার জন্য ১৫ লক্ষ ডলার দিতে প্রস্তুত ছিল. হোয়াইট হাউজের বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, ওবামা এবং রাজা আব্দাল্লা আলাপের সময় স্বীকার করেন যে, পরিকল্পিত এই হত্যার ষড়যন্ত্র আন্তর্জাতিক ব্যবহারের মান ও আইনের রূঢ় লঙ্ঘন. তাছাড়া, তাঁরা তাদের শাস্তি দেওয়ার অভিপ্রায়ের কথা ঘোষণা করেন, যারা এ ষড়যন্ত্রের আয়োজনে জড়িত ছিল, উল্লেখ করা হয়েছে দলিলে. আগে উপ-রাষ্ট্রপতি জোসেফ বাইডেন বলেন যে, ইরান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূতকে হত্যার প্রস্তুতি চালিয়েছিল এ খবর ইরানবিরোধী বাধানিষেধ বাড়াতে পারে. তিনি “সি.বি.এস” টেলি-চ্যানেলে বলেন, “গুরুত্বপূর্ণ হল, আমরা যেন ঐক্যবদ্ধ হই ইরানকে বিচ্ছিন্ন করার জন্য. শুধু সেই ক্ষেত্রেই আমরা ফল পাব”. তেহেরান ইরানী ষড়যন্ত্রের উদ্ঘাটন সম্বন্ধে ওয়াশিংটনের বিবৃতিকে ইরানের মর্যাদা কলঙ্কিত করার এবং অঞ্চলে ঝগড়া-বিবাদ বাধানোর চেষ্টা বলে অভিহিত করেছে.