মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশ সচিব হিলারি ক্লিনটন ঘোষণা করেছেন, যে আফগানিস্তানে যুদ্ধপরবর্তী পরিস্থিতি স্বাভাবিকীকরনের প্রশ্নে তার দেশ পাকিস্তানের সাথে সহযোগিতা চালিয়ে যাবে. তিনি স্বীকার করেছেন, যে ওয়াশিংটনের পক্ষে পাকিস্তানের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখা কঠিন, কিন্তু সংলাপ চালিয়ে যাওয়া অপরিহার্য, কেননা সমস্যার সমাধান আপনা আপনি হয় না. ক্লিনটন আফগানিস্তানে শান্তি প্রক্রিয়ায় সাহায্য করার জন্য পাকিস্তানের কাছে আহ্বাণ জানিয়েছেন. ওয়াশিংটনের প্রত্যাশা অনুযায়ী পাকিস্তানের উচিত পদক্ষেপ নেওয়া. তা নাহলে পাকিস্তান নিজেই সমস্যার একটা অঙ্গ হিসাবে থেকে যাবে বলে ক্লিনটন মন্তব্য করেছেন.

       ঐ দুই রাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্কের আকস্মিক অবনতি ঘটে গত মে মাসে, যখন আমেরিকা পাকিস্তানের ভূখন্ডে ওসামা বেন লাদিনকে খতম করে. ওয়াশিংটন ঐ সামরিক অভিযান সম্পর্কে পাকিস্তানকে আগে থেকে না জানানোয় সে দেশের রাজনীতিবিদেরা ক্ষুব্ধ হয়েছেন.