গত কয়েকদিন ধরে মিশরে সারাদেশ জুড়ে খ্রীস্টীয় কোপ্ত সম্প্রদায়ের ব্যাপক প্রতিবাদী আন্দোলনের কারনে দেশের শীর্ষ সামরিক নেতৃত্ব খ্রীস্টান নেতৃবৃন্দের সাথে জরুরী বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে. বৃটিশ সংবাদপত্র ‘গার্ডিয়ান’ জানাচ্ছে, যে বিগত প্রতিবাদী সমাবেশ ছিল হোসনি মুবারককে উচ্ছেদ করার পরে সবচেয়ে জনবহুল. সংঘর্ষে অন্তত ২৬ জন নিহত হয়েছে, যাদের মধ্যে নিরাপত্তারক্ষীরাও আছে. আরো প্রায় ৩০০ জন আহত হয়েছে. কোপ্ত সম্প্রদায়ের সক্রিয় সদস্যদের বক্তব্য, যে তারা শান্তিপূর্ণ সমাবেশের আয়োজন করেছিল, কিন্তু সেনাবাহিনী তাদের উপর আক্রমণ করে এবং ট্যাঙ্ক থেকে গোলা চালায়. তারপরই সমাবেশকারী ও সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়. মিশরের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, যে নিহতদের মধ্যে ৩ জন নিরাপত্তারক্ষী. মিশরের আসুয়ান প্রদেশে গীর্জ্জার উপর হামলা হওয়ার পরেই সংঘর্ষ শুরু হয়. খ্রীস্টানরা ঐ হামলার জন্য মুসলিম উগ্রপন্থীদের দায়ী করছে.