ভারত ও রাশিয়া “ব্রামোস” মার্কা হাইপারসোনিক ক্রুইজ মিসাইল তৈরি করছে স্টেলস প্রকৌশলের ভিত্তিতে, যার গতি ধ্বনির গতির চেয়ে প্রায় সাতগুণ বেশি হবে. এ সম্বন্ধে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন “ব্রাহমোস এয়ারোস্পেস” কোম্পানির প্রধান শ্রী এস. পিল্লাই. তাঁর কথায়, এই অতি আধুনিক কাজ নিয়ে খাটছে গোটা একসারি কোম্পানির ভারতীয় ও রুশী বিশেষজ্ঞরা. শ্রী পিল্লাইয়ের কথায়, “স্টেলস-ব্রামোস” তৈরি শেষ করতে পাঁচ-ছয় বছর লাগবে. এ ধরণের ক্রুইজ মিসাইলের জন্য নতুন ধরণের ইঞ্জিন তৈরি করতে হবে. এ মিসাইলের ক্ষেপণের পরীক্ষা শুরু হবে ২০১২ সালে. রুশ-ভারত প্রতিষ্ঠানের প্রধান মনে করিয়ে দেন যে, তাছাড়া, এ রকেটের অন্যান্য ধরণ তৈরি নিয়েও সক্রিয়ভাবে কাজ চলছে, সেই সঙ্গে পঞ্চম প্রজন্মের ফাইটার বিমানে বসানোর জন্যও, যা দু দেশের সামরিক-শিল্প সমাহারের উত্পন্ন দ্রব্য হয়ে উঠবে. বর্তমানে ভারতের সশস্ত্র বাহিনীতে “ব্রামোস” রকেটের দুটি ধরণ ব্যবহৃত হচ্ছে – জলভিত্তিক ও স্থলভিত্তিক.