মিশরের প্রধানমন্ত্রী এসাম শারাফ কায়রোতে বিশৃঙ্খলার অংশগ্রহণকারীদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন. বৃটিশ টেলি-রেডিও কর্পোরেশন “বি.বি.সি” সোমবার জানিয়েছে যে, তিনি খৃস্টান ও মুসলমানদের মাঝে সঙ্ঘর্ষকে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য বিপদ বলে বর্ণনা করেছেন. টেলি-সম্ভাষণে শারাফ বলেন, “দেশের নিরাপত্তার জন্য সবচেয়ে গুরুতর বিপদ হল জাতীয় ঐক্যের ভাঙন এবং মিশরের মুসলমান ও খৃস্টান সন্তানদের মাঝে ঝগড়া-বিবাদ বাধানো”.  তিনি উল্লেখ করেন য়ে, বর্তমান সঙ্ঘর্ষ – এ হল এ বছরের ফেব্রুয়ারীতে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হোসনি মুবারককে শাসন ক্ষমতা থেকে অপসারণের পরে সবচেয়ে খারাপ ঘটনা. খৃস্টান ও মুসলমানদের মাঝে সঙ্ঘর্ষের ফলে নিহতদের সংখ্যা পৌঁছেছে ২৪ জনে, ২০০ জনের উপরে আহত হয়েছে. পুলিশের কয়েকটি সাঁজোয়া গাড়ি পোড়ানো হয়েছে. কায়রোতে গত রাতে কার্ফিউ জারি করা হয়েছে. কায়রোতে সঙ্ঘর্ষ শুরু হয় মিশরের আসুয়ান প্রদেশে খৃস্টান-কোপ্টদের একটি গীর্জা আক্রমণের খবর পাওয়ার পর. খৃস্টানরা এর জন্য দোষ দিচ্ছে রাডিক্যাল মুসলমানদের.