জাতিসংঘের সাধারণ সম্পাদক সিরিয়ায় গণতন্ত্রীদের দমন করা বন্ধ করার জন্য সিরিয়ার শাসকদের আহ্বাণ জানানোর প্রসঙ্গে ঘোষণাপত্র গৃহীত না হওয়ার কারনে হতাশ. গত বুধবার বান কি মুনের তথ্যসচিব সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সেইসঙ্গেই তিনি আশা করছেন, যে মতবিরোধ অতিক্রম করা যাবে. বান কি মুনের স্থিতি এই প্রশ্নে পূর্বের মতোই – সিরিয়ায় হিংসাত্মক ঘটনাবলী মেনে নেওয়া যায় না. ইতিপূর্বে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রাশিয়া ও চীন সিরিয়ার প্রশ্নে ভেটো দেয়. নিরাপত্তা পরিষদের নটি সদস্য দেশ ঐ ঘোষণাপত্রের স্বপক্ষে ভোট দেয়, আরও চারটি দেশ ভোটদান থেকে বিরত থাকে.