লিবিয়ার অন্তর্বর্তীকালীন জাতীয় পরিষদের নেতৃবৃন্দ মনে করে, যে তারা চূড়ান্তভাবে মুয়াম্মার গদ্দাফিকে পরাভূত করেছে. বৃটিশ সংবাদপত্র গার্ডিয়ান লিখেছে, যে যদিও এখনো পর্যন্ত গদ্দাফির আপন শহর সির্তে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ চলছে, নতুন শাসক কতৃপক্ষ মনে করে, যে তারা চূড়ান্তভাবে জয়লাভ করেছে. গার্ডিয়ান আরও জানাচ্ছে, যে বিরোধীদের দ্বারা অবরুদ্ধ বানি-ওয়ালিদ শহরের ওপরেও গদ্দাফির অনুগতরা নিয়ন্ত্রণ বজায় রেখেছে. জাতীয় পরিষদ জানাচ্ছে, যে তারা খুব শীঘ্রই সির্ত শহর দখল করবে. তাদের প্রতিনিধি আবদেলজালিল বলেছেন, যে গদ্দাফির অনুগত জঙ্গীরা সির্ত শহরের তুলনায় বানি-ওয়ালিদ শহরে অনেক কম বিপজ্জনক. সেইজন্যেই তার মতে বানি-ওয়ালিদ শহরের পতনের অপেক্ষা না করেই নতুন মন্ত্রীসভা গঠণ করা যেতে পারে.