মিশরের অন্তর্বর্তীকালিন সরকার আসন্ন নির্বাচনের জন্য সুনির্দিষ্ট আইন পরিবর্তনে সম্মতি হয়েছে।একই সাথে পুরো দেশ থেকে প্রয়োজন হলে  জরুরি পরিস্থিতি তুলে নেয়ারও আশ্বাষ দিয়েছে।মিশরের সেনাবাহিনীর মহাপরিচালক সামি আন্নান দেশটির ১৭টি রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের সাথে সাক্ষাত শেষে এ কথা বলেন।কায়রোর তাহরির স্কায়ারে ‘বিপ্লব ফিরিয়ে আনো’ কর্মসূচির পরই ক্ষমতাশীল সামরিক বাহিনী দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনা বসার সিদ্ধান্ত নেয়।আন্দোলনকারিরা নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য চুড়ান্ত দিনক্ষন ধার্য করা এবং গনতান্ত্রিক ধারায় নির্বাচনের জন্য আইন পরিবর্তনের দাবী জানায়।প্রসঙ্গত,মিশরের সাবেক নেতা হুসেন মুবারকের পতনের পর আগামী ২৮ নভেম্বর প্রথমবারের মত পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।নির্বাচন প্রায় ৬ মাস ধরে  চলবে এবং এর পরই নতুন সংবিধান তৈরীসহ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।