রাশিয়া এ সম্ভাবনা বাদ দিচ্ছে না যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিরিয়ায় হিংসা বন্ধ করার জন্য নির্দেশিত খসড়া সিদ্ধান্ত সফলভাবে সর্বসম্মত করতে পারবে. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন. দুটি খসড়া সিদ্ধান্ত আলোচনার পরে চুরকিন সাংবাদিকদের বলেন যে, প্রধান বিষয় হল – অত্যাচার বন্ধ করা এবং রাজনৈতিক প্রক্রিয়া শুরু করা, যা সংস্কারের দিকে নিয়ে যাবে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে এ দুটি খসড়া সিদ্ধান্ত পেশ করেছিল রাশিয়া এবং একসারি ইউরোপীয় দেশ. কখন সিদ্ধান্ত দেখা দিতে পারে, এ প্রশ্নের উত্তরে চুরকিন বলেন যে, সিদ্ধান্ত তাড়াতাড়ি গৃহীত হতে পারে, যদি নিরাপত্তা পরিষদ সিরিয়া সম্পর্কে সর্বসম্মত ও সুনির্দিষ্ট স্থিতি প্রণয়ন করতে সক্ষম হয়. রাশিয়ার কূটনীতিজ্ঞ জোর দিয়ে বলেন, “গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল ভুল না করা, রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সঙ্কেত যেন হয় স্পষ্ট”. আগে বুধবারই ফ্রান্সের স্থায়ী প্রতিনিধি ঝেরার আরো সাংবাদিকদের জানান যে, সিরিয়া সম্পর্কে সিদ্ধান্তের বয়ান শুক্রবারের মধ্যেই সর্বসম্মত করা যেতে পারে. নিজের তরফ থেকে সিরিয়া রাশিয়ার খসড়া সিদ্ধান্ত সমর্থন করেছে, যাতে এ দেশের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বাধানিষেধ অনুমিত নেই. রাষ্ট্রসঙ্ঘে সিরিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি বাশার জাফারি বলেন, ‘ইউরোপীয় ও মার্কিনী স্থিতির ভারসাম্য সুনিশ্চিত করতে পারে এমন সব কিছুই অনুমোদনযোগ্য”.