রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ মনে করেন, যে কিছু কিছু রাজনীতিবিদ ন্যাটোর জন্যে দুনিয়াজুড়ে অভিযান চালানোর অধিকার কায়েম করার চেষ্টা চালিয়ে গেলেও, ঐ জোট জাতিসঙ্ঘের বিকল্প হতে পারে না. আজ রাসিস্কায়া গাজিয়েতা নামক সংবাদপত্রে প্রকাশিত তার সাক্ষাত্কারে তিনি এই মন্তব্য করেছেন. পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মতে ইদানীংকালে ন্যাটো জাতিসঙ্ঘ প্রণীত কানুন মেনে চলা শিখছে. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে ২০০৮ সালে ঐ দুই সংস্থার সম্পাদকীয় দপ্তরগুলির মধ্যে সহযোগিতার ঘোষণাপত্র স্বাক্ষরিত হয়. আন্তর্জাতিক অধিকারের প্রতি আনুগত্যপ্রকাশ তাদের নতুন স্ট্র্যাটেজিক মতাদর্শে উল্লিখিত হয়েছে. তবে আনুগত্য যেন ছাপার অক্ষরেই সীমাবদ্ধ না খাকে, তা ন্যাটোর শরিকদের পৃথক এবং গোষ্ঠীগত কার্যকলাপে যেন প্রতিফলিত হয়. এখানে উল্লেখ করা উচিত, যে ইদানীংকালে জাতিসংঘ সক্রিয়ভাবে আঞ্চলিক শরিকদের সংখ্যা বাড়াচ্ছে, তাদের ওপর নিজ নিজ অঞ্চলের পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখার দায়িত্ব অর্পণ করছে. লাভরোভ আরও বলেছেন, যে জাতিসংঘের চার্টারে আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা, প্রয়োজনে বলপ্রয়োগমুলক অভিযান ও শাস্তিমুলক ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণীকরনের প্রশ্নে নিরাপত্তা পরিষদের নিরঙ্কুশ অধিকারের কথা গ্রন্থিত আছে.