রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন সিরিয়ার কর্তৃপক্ষের ক্রিয়াকলাপের সমালোচনা করেছেন, যা বিরোধীপক্ষের ব্যাপক পরিসরের প্রতিবাদ আন্দোলনের সম্মুখীন হয়েছে. তিনি আন্তর্জাতিক জনসমাজকে আহ্বান জানিয়েছেন সিরিয়ার সমস্যা মীমাংসায় একক দৃষ্টিভঙ্গী প্রণয়নের. বান কি মুনের কথায়, সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ দেশে অত্যাচার বন্ধ করা এবং সংস্কার সাধন সম্বন্ধে তাঁকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি পুরণ করেন নি. রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক জোর দিয়ে বলেন, “তিনি নিজের কথা রাখেন নি. এটা আতিশয্য, আর তাই আন্তর্জাতিক জনসমাজের উচিত সর্বসম্মত ব্যবস্থা গ্রহণ করা এবং একক স্থিতি প্রণয়ন করা”. রাষ্ট্রসঙ্ঘের তথ্য অনুযায়ী, বিগত ছয় মাসে সিরিয়ায় মিছিলকারীদের সাথে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্ঘর্ষের ফলে ২৬০০ জন নিহত হয়েছে. প্রসঙ্গত, সিরিয়ার সরকারী বাহিনী তুরস্কের সীমানার কাছে সশস্ত্র জঙ্গীদের উচ্ছেদের জন্য বিশেষ অভিযান চালাচ্ছে, জানিয়েছে সিরিয়ার প্রচার মাধ্যম. প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, পাহাড়ী জেবেল-এজ-জাভিয়া অঞ্চলে প্রায় ১০টি গ্রাম অবরোধ করা হয়েছে. সেখানে সেই সব সৈনিকরাও থাকতে পারে, যারা ক্ষমতাসীন শাসনের বিরোধীদের সাথে যোগ দিয়েছে.