প্যালেস্টাইনের বহু নাগরিক জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ১৯৬৭ সালের সীমারেখা অনুযায়ী তাদের ভূখন্ডের স্বাধীনতার স্বীকৃতির সম্ভাবনার ব্যাপারে উদ্বুদ্ধ. এ খবর পরিবেশন করেছে আমেরিকার সংবাদপত্র ‘নিউ-ইয়র্ক টাইমস’. কিন্তু প্যালেস্টিনীয়রা মনে করে, যে স্বাধীনতার স্বীকৃতি পেলেও তাদের জীবনযাত্রার মান অদূর ভবিষ্যতে উন্নীত হবে না. বরং তারা মনে করে, যে ইজরায়েল এবং মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্র তাদের বিরুদ্ধে দমনমুলক ব্যবস্থা নিতে পারে. সংবাদপত্রটির মতে, জাতিসংঘে আবেদনপত্র পেশ করা মাহমুদ আব্বাসের পক্ষে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ কাজ. স্বাধীনতা স্বীকৃত হোক বা না হোক, খুব সম্ভবতঃ প্যালেস্টিনীয়দের অবস্থার আরও অবনতি ঘটতে পারে. প্যালেস্টিনীয়রা আর তৃতীয় অভ্যুথ্থানে বিশ্বাস করে না, কিন্তু তাদের জীবনযাত্রার মানের বহুদফা উন্নতি না ঘটলে দেশে অনাসৃষ্টির উদ্ভব হতে পারে. প্যালেস্টিনীয়রা এই মাসে জাতিসংঘের সাধারণ এ্যাসেম্বলির কাছে তাদের স্বাধীনতার স্বীকৃতিদানের জন্য আবেদনপত্র পেশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে.