কাবুল শহরে দূতাবাসগুলির এলাকায় লড়াইয়ে ২৭ জন নিহত হয়েছে. তত্সংক্রান্ত বিবৃতি দিয়েছেন আফগানিস্তানে নিরাপত্তায় সহায়তা করার আন্তর্জাতিক বাহিনীর বিন্যাসে মার্কিনী বাহিনীর অধিনায়ক জেনারেল জন অ্যালেন. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে “এ.পি” সংবাদ এজেন্সি. অ্যালেনের কথায়, নিহতদের মধ্যে আছে ১১ জন জঙ্গী, ৫ জন আফগান পুলিশের কর্মী এবং ১১ জন শান্তিপূর্ণ বাসিন্দা, যাদের মধ্যে কয়েকটি শিশু আছে. এ অঞ্চলে পুলিশ বাহিনী ও জঙ্গীদের মাঝে লড়াই শুরু হয় ১৪ই সেপ্টেম্বর সকালে এবং তা চলে প্রায় ২০ ঘন্টা ধরে. জঙ্গীরা ন্যাটো জোটের প্রতিনিধি দপ্তর ভবনের উপর অটোমেটিক রাইফেল ও গ্রেনেড থ্রোয়ার থেকে ব্যাপক অগ্নিবর্ষণ করে, আর তারপরে একটি ভবনে ঘাঁটি গেড়ে থাকে. তাদের প্রতিরোধ ভাঙ্গা সম্ভব হয় কয়েক ঘন্টা পরে, বিমানবাহিনীর সমর্থনে. কয়েকজন আক্রমণকারী পালাতে সক্ষম হয়, তবে শহরে তাদের অনুসন্ধান ঘোষণা করা হয়েছে. এ ছাড়া, জঙ্গীরা অন্যান্য অঞ্চলে আত্মঘাতী-জঙ্গীদের পাঠায়. শহরের পশ্চিমাঞ্চলে এক আত্মঘাতী-সন্ত্রাসবাদী শৃঙ্খলা রক্ষা বিভাগের ভবনের প্রবেশপথে নিজেকে বিস্ফোরণ করে, ফলে একজন পুলিশ কর্মী নিহত হয়েছে. দ্বিতীয় আত্মঘাতী স্কুল ভবনের পাশে নিজেকে বিস্ফোরণ করে, তৃতীয় জনকে পুলিশ ধ্বংস করে কাবুল বিমানবন্দরের কাছে, তার জামা-কাপড়ের তলায় পাওয়া গেছে ৭ কিলোগ্রাম বিস্ফোরক বস্তু.