মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আশা করে যে, নিকট প্রাচ্য “মধ্যস্থ চতুষ্টয়ের” অংশগ্রহণকারীরা, সেই সঙ্গে রাশিয়া, প্যালেস্টাইনকে ইস্রাইলের সাথে আলাপ-আলোচনার টেবিলে ফেরার জন্য রাজি করাবে. ওয়াশিংটন তাছাড়া আহ্বান জানিয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভোটদানের মাধ্যমে নিজের সার্বভৌমত্ব অনুসন্ধান না করার জন্য প্যালেস্টাইনীদের বোঝানোর, বলেছেন পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া নুল্যান্ড. তাঁর কথায়, “মধ্যস্থ চতুষ্টয়” (রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোসঙ্ঘ, রাষ্ট্রসঙ্ঘ)সমস্ত কিছুই করবে পক্ষদ্বয়কে আলাপ-আলোচনার টেবিলে ফিরিয়ে আনার জন্য. নুল্যান্ড মনে করিয়ে দেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভোটদানের মাধ্যমে প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রীয় সত্ত্বার স্বীকৃতির বিরুদ্ধে চূড়ান্ত মত প্রকাশ করে. এমন প্রশ্ন যদি আলোচ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত হয়, তাহলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নিজের ভেটোর অধিকার খাটাবে. নুল্যান্ড উল্লেখ করেন, এখনও সময় আছে, যাতে “চতুষ্টয়” নিজের ভূমিকা পালন করে পক্ষদ্বয়কে আলাপ-আলোচনার টেবিলে ফিরিয়ে আনতে পারে. এখন “চতুষ্টয়ের” সমস্ত অংশগ্রহণকারীর এ নিয়েই কাজ করা উচিত্.