তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রেজেপ তাইপ এর্দোগান মঙ্গলবার “আরব্য বসন্তের” দেশগুলিতে সফর শুরু করছেন. এ সফরের সময় তিনি যাবেন মিশর, লিবিয়া ও টিউনিসিয়া. এ সফরের উদ্দেশ্য হল এ সব দেশে গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠায় সমর্থন জানানো, আর তাছাড়া নিকট প্রাচ্য অঞ্চলে স্ট্র্যাটেজিক শরিকানার বিষয় আলোচনা করা. এর্দোগানের সফর শুরু হচ্ছে মিশর থেকে, যা নিকট প্রাচ্যে তুরস্কের সবচেয়ে পরিপ্রেক্ষিতপূর্ণ শরিক. প্রধানমন্ত্রীর দুদিনের কায়রো সফর খুবই ব্যস্ততাপূর্ণ থাকবে. মঙ্গলবার এর্দোগান আলাপ-আলোচনা করবেন মিশরের বর্তমান নেতা, সশস্ত্র বাহিনীর সর্বোচ্চ পরিষদের প্রধান হুসেইন তান্তাউই এবং মিশরের প্রধানমন্ত্রী ইসাম শারাফের সাথে. তাছাড়া, কায়রোতে আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের প্রধান সচিব নাবিল আল-আরাবির সাথে এর্দোগানের আলাপ-আলোচনা পরিকল্পিত. আশা করা হচ্ছে যে, তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী কায়রোতে আরব ও ইস্লাম জগতের প্রতি আবেদন জানাবেন. ইস্রাইলের সাথে মিশর ও তুরস্কের সম্পর্ক তীব্র হওয়ার পটভূমিতে এ সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে.