রাশিয়া ও তুরস্কের মাঝে পণ্য-আবর্তন বৃদ্ধির জন্য সবচেয়ে পরিপ্রেক্ষিতপূর্ণ শাখা হল জ্বালানী এবং পর্যটন. এগুলি রুশ-তুর্কী পণ্য-আবর্তনকে ২০১৫ সাল নাগাদ ১০ হাজার কোটি ডলার পর্যন্ত পৌঁছোতে সাহায্য করতে পারে, “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন তুরস্কের রাষ্ট্রপতি আব্দুল্লা গিউল. তাঁর কথায়, তিনি এ লক্ষ্য সাধনের বিষয়টি আলোচনা করেছেন ইয়ারোস্লাভলে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাতে. গিউল উল্লেখ করেন যে, রুশ-তুর্কী পণ্য-আবর্তনের যথেষ্ট অংশ হল তুরস্কে রাশিয়ার জ্বালানী আমদানী. তিনি আরও বলেন যে, তুরস্ক রাশিয়ার ভূভাগে লজিস্টিক কেন্দ্র নির্মাণে আগ্রহী রাশিয়ায় তুরস্কের পণ্যদ্রব্য রপ্তানীর জন্য. তাছাড়া, আঙ্কারা রাশিয়ার সাথে পারস্পরিক বিনিয়োগ বৃদ্ধিতেও আগ্রহী. মেদভেদেভের সাথে সাক্ষাতে রাষ্ট্রপতিরা তাছাড়া একসারি আন্তর্জাতিক সমস্যাও আলোচনা করেছেন. বিশেষ করে কথা হয়েছে সিরিয়ার পরিস্থিতি, পূর্ব ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের পরিস্থিতি  সম্বন্ধে, এবং তাছাড়া রাশিয়া ও ন্যাটো জোটের সম্পর্ক সম্বন্ধে, বলেছেন আব্দুল্লা গিউল.