লিবিয়ার বিদ্রোহীরা বানি-ওয়ালিদ শহর শান্তিপূর্ণভাবে সমর্পণ করার ব্যাপারে মুয়ম্মর গদ্দাফির পক্ষসমর্থকদের সাথে সমঝোতায় আসতে সক্ষম হয় নি. বিরোধীপক্ষের সামরিক বাহিনী অবিলম্বে শহরের উপর চূড়ান্ত আক্রমণ শুরু করতে প্রস্তুত. এ শহরটি ত্রিপোলি থেকে ৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পুবে অবস্থিত এবং এটি কয়েকটি শহরের একটি, যা গদ্দাফির পক্ষসমর্থকদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে. একসারি সামরিক বিশেষজ্ঞের মতে, বানি-ওয়ালিদে থাকতে পারেন গদ্দাফি নিজে এবং তাঁর ছেলেরা – সৈইফ আল-ইস্লাম এবং সাআদি. কর্নেল গদ্দাফির আপন শহর সির্তের অবরোধ চলছে. গুলিবারুদের তীব্র অভাব সত্ত্বেও জনসাধারণ কয়েক সপ্তাহ ধরে অস্ত্র সমর্পণ করতে অস্বীকার করছে. প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায়, সির্তের পরিস্থিতি সঙ্কটের অবস্থার কাছাকাছি. লিবিয়ার নতুন কর্তৃপক্ষ ত্রিপোলিতে গ্রেপ্তার করেছে গদ্দাফির এক ঘনিষ্ঠ সহযোগী – আহমেদ আব্দাল্লা ওউনকে. তিনি কর্নেলকে সমর্থন করে এসেছেন ১৯৬৯ সালে সামরিক কুদেতার সময় থেকে, যে কুদেতার ফলে গদ্দাফি ক্ষমতায় আসেন.