রাশিয়ায় সংসদ নির্বাচণ – প্রচার ও পূর্বাভাস

রাসিয়ার লোকসভার আসন্ন নির্বাচণের উদ্দেশ্যে প্রাকনির্বাচণী প্রচার শুরু হল. গতকাল রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি সেই মর্মে এক ডিক্রি জারী করেছেন, যেখানে আগামী ৪ঠা ডিসেম্বর নির্বাচণের ডাক দেওয়া হয়েছে. আসন্ন নির্বাচণের কয়েকটি আগ্রহোদ্দীপক প্লট আছে. ‘অভিন্ন রাশিয়া’ পার্টি কি লোকসভায় তাদের নিরংকুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে পারবে, নতুন রাজনৈতিক দল ‘সঠিক কর্মকান্ড’ কতখানি সফল হবে.

  যে সব রাজনৈতিক দল গত কয়েকমাস ধরে সংগঠণের কাজে মেতে রয়েছে, তারা গতসপ্তাহের শুরুতে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রাকনির্বাচণী প্রচারে নামলো. সমস্ত সংসদীয় দল ও সংসদবহির্ভূত পার্টির নেতাদের সাথে সাক্ষাত্কালে রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ ঘোষণা করেছেন – মুল কর্তব্য হল, যাতে নতুন লোকসভায় সর্বাধিকসংখ্যক রাশিয়ানদের দৃষ্টিভঙ্গী প্রতিফলিত হয়, সেই লক্ষ্যেই নির্বাচন পদ্ধতির কিছু রদবদল করা হয়েছে.

   ‘পিটার্সবার্গের রাজনীতি’ নামক সংস্থার সভাপতি মিখাইল ভিনোগ্রাদভের মতে লোকসভার ৪৫০টি আসন ৩টে রাজনৈতিক পার্টির মধ্যে ভাগ হবে. ---

   এই মুহুর্তে রাজনৈতিক শক্তির বিণ্যাস এরকম, যে ৩টি পার্টি সুনিশ্চিতভাবে সংসদে স্থান পাবে – তারা হল ‘অভিন্ন রাশিয়া’, কমিউনিস্ট পার্টি এবং উদারপন্থী গণতান্ত্রিক পার্টি. আরও দুটি পার্টির সম্ভাবনা আছেঃ তারা হল ‘ন্যায্য রাশিয়া’ ও ‘সঠিক কর্মকান্ড’ নামক পার্টি. ‘অভিন্ন রাশিয়া’ দলের সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে – জনপ্রিয়তা কমে যাওয়া.

    তবে তা সত্বেও শাসক দল ‘অভিন্ন রাশিয়া’ অন্যদলগুলির নাগালের বাইরে. রাজনীতি নামক সংস্থার সভাপতি ভিচেস্লাভ নিকোনভ মনে করেন, যে ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ ভোটদাতাই ‘অভিন্ন রাশিয়া’ পার্টির স্বপক্ষে ভোট দেবে. ---

      ‘অভিন্ন রাশিয়া’ নিজেকে রক্ষণশীল পার্টি হিসাবে উপস্থাপণ করে, যারা সনাতন ইউরোপীয় মূল্যবোধের ধারক-বাহক. তারা বৃহত্তর জনগণ, বিশেষতঃ সামাজিকভাবে সক্রিয় অংশের কাছে শাসনপ্রক্রিয়ায় যোগ দেবার আবেদন জানাচ্ছে. এই পার্টি বাজারী অর্থনীতির পক্ষে, যা রা্ষ্ট্রের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবে এবং তারা আধুনিক জগতে রাশিয়াকে স্বয়ংসম্পূর্ণ কেন্দ্র হিসাবে দেখে.

   খুবই স্বাভাবিক, যে ‘অভিন্ন রাশিয়া’ পার্টি সব বিরোধী রাজনৈতিক দলের আক্রমণের লক্ষ্য হবে. যেমন রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাতে ‘সঠিক কর্মকান্ড’ দলের নেতা এবং কোটিপতি মিখাইল প্রোখোরভ নির্বাচণে বিজয়ী পার্টির মোট আসনসংখ্যা সংসদের অর্দ্ধেক আসন প্লাস একটি আসনে বেঁধে দেবার প্রস্তাব দিয়েছেন. আর নিজের পার্টির ইস্তাহারে তিনি রাষ্ট্রীয় কোম্পানীগুলি ও সেখানে কর্মরত আমলাদের ওপর কড়া নিয়ন্ত্রণ জারী করার আহ্বাণ জানিয়েছেন. এর দৌলতে তার পার্টির জনপ্রিয়তা কিছুটা বেড়েছে, বছরের শুরুতে ১ শতাংশ থেকে বেড়ে ৩ শতাংশে দাঁড়িয়েছে বলে মিখাইল ভিনোগ্রাদভ উল্লেখ করছেন. ---

   কমিউনিস্ট পার্টির কথা বলতে গেলে বলতে হয়, যে তাদের জনপ্রিয়তার মাত্রায় কোনো নড়চড় নেই – ১৮ শতাংশ ভোটদাতা তাদের পক্ষে. জাতীয় স্ট্র্যাটেজি ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মিখাইল রেমিজোভ বলছেন. ---

   আজ কমিউনিস্ট পার্টির সমর্থকদের সারিতে বৈচিত্র্য বাড়ছে. তারা আর শুধু নস্টালজিয়াগ্রস্ত অবসরপ্রাপ্ত লোকজন নয়. তাদের সারিতে নতুন বিক্ষুব্ধের সংখ্যা বাড়ছে. বিক্ষুব্ধদের অধিকাংশ ভোটই কমিউনিস্টদের পক্ষে যায়, যার সুবাদে তারা একটানা মূল বিরোধী পার্টির ভূমিকায় রয়ে যাচ্ছে.