রাষ্ট্রসঙ্ঘ ইস্রাইলের দ্বারা গাজা অঞ্চলের অবরোধকে আইনসঙ্গত বলে মনে করে, তবে ২০১০ সালের মে মাসে নৌবহর থামানোর জন্য বল প্রয়োগকে মাত্রাধিক্য এবং অনুপকারী বলে মনে করে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের সামুদ্রিক আইন সংক্রান্ত কমিশনের রিপোর্টের কপির উদ্ধৃতি দিয়ে এ সম্বন্ধে লিখেছে “নিউ ইয়র্ক টাইমস” পত্রিকা.  সরকারীভাবে এ রিপোর্ট প্রকাশিত হওয়ার কথা শুক্রবার. ইস্রাইলী সীমান্ত-রক্ষীরা প্যালেস্টাইন সমর্থক “মুক্তির নৌবহর” দখল করে নেয়, যা ২০১০ সালের মে মাসে গাজা অঞ্চলের অবরোধ ভাঙ্গার জন্য যাচ্ছিল. নৌবহরের প্রধান জাহাজে অবতরণ বাহিনী নামানোর সময় সঙ্ঘর্ষে নিহত হয় তুরস্কের নাগরিক নয়জন সক্রিয় কর্মী. রাষ্ট্রসঙ্ঘের কমিশন ঘোষণা করে যে, নৌবহরের প্রধান জাহাজে ইস্রাইলী সৈনিকরা “সুসংগঠিত ও কঠোর প্রতিরোধের” সম্মুখীন হয়. তবুও রিপোর্টের রচয়িতারা ইস্রাইলীদের ক্রিয়াকলাপকে, যার ফলে কয়েকজন নিহত হয়েছে, মাত্রাধিক্য ও অনুপকারী বলে অভিহিত করেছেন.