সিরিয়ার হামা প্রদেশের প্রধান অভিশংসক আদনান বাক্কুর বুধবার নিজের পদত্যাগের কথা ঘোষণা করেছেন. তিনি আরও ঘোষণা করেন যে, সিরিয়ার সরকারের ক্রিয়াকলাপের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হিসেবে বিরোধী পক্ষে যোগ দিচ্ছেন. এ সম্বন্ধে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে “রয়টার” সংবাদ এজেন্সি. আগে সিরিয়ার প্রচার মাধ্যম জানিয়েছিল যে, হামা প্রদেশের প্রধান অভিশংসককে অজানা ব্যক্তিরা সোমবার অপহরণ করেছিল, যখন তিনি কাজে যাচ্ছিলেন. বুধবার  এক ভিডিও-রেকর্ডে, যার উদ্ধৃতি দিচ্ছে “রয়টার”, আল-বাক্কুর বলেন যে, তাঁকে অপহরণ সম্পর্কে সিরিয়ার প্রচার মাধ্যমের খবর সত্যি নয়. তিনি আরও জানান যে, তিনি বিরোধী শক্তির রক্ষায় রয়েছেন এবং সিরিয়ার সীমানার বাইরে গিয়ে সবকিছু সম্বন্ধে নিজের বক্তৃতায় বলবেন. ভিডিও-রেকর্ডে বাক্কুর স্বীকার করেন যে, হামা প্রদেশে ৭০টিরও বেশি মৃত্যুদন্ড পালনের এবং সরকারী নিরাপত্তা বাহিনীর দ্বারা সিরিয়ার নাগরিকদের নির্যাতনের শতাধিক ঘটনার সাক্ষী ছিলেন. বাক্কুরের পদত্যাগের খবর যদি প্রমাণিত হয়, তাহলে এটি হবে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের শাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে উচ্চপদস্থ ব্যক্তির প্রথম পদত্যাগ, উল্লেখ করেছে “রয়টার”. সিরিয়ায় সরকারবিরোধী আন্দোলন চলছে পাঁচ মাস ধরে. হামা হল সরকারবিরোধী আন্দোলনের একটি মুখ্য কেন্দ্র. রাষ্ট্রসঙ্ঘের তথ্য অনুযায়ী, আন্দোলন দমনের ফলে দেশে নিহত হয়েছে ২ হাজারেরও বেশি লোক.