রাশিয়াতে লোকসভা নির্বাচনের জন্য প্রাক্ নির্বাচনী প্রচারের সময় শুরু ঘোষণা করা হয়েছে, শুরুর মুহূর্ত হয়েছে – রাষ্ট্রপতির নির্দেশ "রাশিয়ার ষষ্ঠ নির্বাচিত লোকসভার জন্য ৪ই ডিসেম্বর নির্বাচন ঘোষণা". এই প্রথম লোকসভা নির্বাচিত হবে পাঁচ বছরের জন্য. দ্বিতীয় ও শেষবার লোকসভাতে পূর্ণ প্রতিনিধিত্বের জন্য রাজনৈতিক দলগুলিকে সাত শতাংশের বাধা পার হতে হবে. যদিও রাশিয়ার রাজনৈতিক ব্যবস্থার সংশোধন এই নির্বাচনেই ছোট রাজনৈতিক দল গুলিকে বাস্তব সুযোগ করে দেবে নিজেদের উল্লেখ করার ও লোকসভাতে প্রতিনিধিত্ব করার.

    এই বছরে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক ঘটনা আরও নিকটবর্তী হয়েছে. রাজনৈতিক দলগুলি যারা বিগত সমস্ত মাস গুলিতে প্রাক্ নির্বাচনী সক্রিয়তা বেশী করে প্রদর্শন করেছে, তারা সরকারি ভাবে নিজেদের প্রাক্ নির্বাচনী প্রচারের ম্যারাথন শুরু করতে পারবে. গরম কাল কেটেছে বকলমে রাজনৈতিক বিতর্কে, এই বারে দল গুলি নিজেদের সক্রিয় করার অধিকার রাখে.

    আশা করা হয়েছে যে, নির্বাচনে সরকারি ভাবে নথিবদ্ধ সাতটি রাজনৈতিক দলে সব কটিই অংশ গ্রহণ করতে পারবে. লোকসভার বড় চার দল: "ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া", "কমিউনিস্ট পার্টি", "লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক দল" ও "ন্যায় সঙ্গত রাশিয়া" দলের সঙ্গে যারা ঐতিহ্যগত ভাবে লোকসভার সদস্য পদের জন্য লড়াই করে থাকে, নিজেদের প্রবল ইচ্ছা প্রকাশ করেছে "ইয়াবলকা" ও "রাশিয়ার দেশপ্রেমী দল" এবং দক্ষিণ পন্থী "সঠিক কাজের দল". সুতরাং রাশিয়ার পার্লামেন্টের ষষ্ঠ বার নির্বাচনের পরে নিম্ন কক্ষ অনেক বেশী প্রতিনিধিত্ব মূলক হতে পারে. কারণ হল সদস্য হওয়ার উপযুক্ত নির্বাচনের বাদা কমানো. মনে করিয়ে দিই যে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এই বাধা শতকরা সাত শতাংশ ভোটের থাকলেও, সেই সমস্ত দল যারা শতকরা ছয় শতাংশ ভোট পাবেন, তাঁদের থেকে দুইজন প্রতিনিধি থাকবে লোকসভাতে ও যাঁরা শতকরা পাঁচ শতাংশ ভোট পাবেন, তাঁদের একজন সদস্য থাকবেন.

    এই নির্বাচনের প্রধান দেখার মতো জিনিস হতে চলেছে "ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া" রাশিয়ার লোকসভাতে কতখানি নিজেদের অবস্থানে বজায় থাকতে পারবে, এই রকম মনে করে রাজনীতি নামের তহবিলের সভাপতি ভিয়াচেস্লাভ নিকোনভ বলেছেন:

    ""ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া" নিজেদের এক সংরক্ষণশীল দল হিসাবে উপস্থিত করেছে, যারা ইউরোপের ঐতিহ্য অনুযায়ী এক সামাজিক গণতান্ত্রিক দলের মতো, হতে পারে, এমন কি অনেকটা ক্রিস্টিয়ান ডেমোক্র্যাটিক দলের মতো. তারা সব মিলিয়ে সারা দেশের জনগনের কাছেই আহ্বান করেছে. বর্তমানের ক্ষেত্রে এই সমাজের সবচেয়ে সক্রিয় স্তরের কাছে, তাদের কাছে যারা বাস্তবে দেশে ক্ষমতাকে বাস্তবে ব্যবহার করছে. এটা সেই দল, যারা বাজার অর্থনীতিকে সরকারি নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই রেখে নিতে চেয়েছে, রাশিয়াকে আধুনিক বিশ্বের একটি কেন্দ্র হিসাবে দেখতে চায় ও বহু মেরু বিশিষ্ট বিশ্বের একটি মেরু হিসাবে দেখে".

    স্বাভাবিক ভাবেই সমস্ত দলই চেষ্টা করবে যাতে "ঐক্য বদ্ধ রাশিয়া" লোকসভাতে কিছুতেই তিনশটি আসন দখল করতে না পারে, আর সংবিধান সম্মত সংখ্যাধিক্য না পায়. প্রমাণ হিসাবে "সঠিক কাজের দলের" নেতা কোটি পতি মিখাইল প্রোখোরভ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করার সময়ে প্রস্তাব করেছেন লোকসভাতে বিজয়ী দলের সর্বাধিক সদস্য সংখ্যা যেন ২২৬ এর বেশী না হয়. আর নিজেদের নির্বাচনী প্রচারের ইস্তাহারে এই দল সরকারি একচেটিয়া কোম্পানী গুলির পরিষেবার দামকে স্থির নির্দিষ্ট করতে ও সরকারি কোম্পানী ও তাদের প্রধানদের উপরে নিয়ন্ত্রণ কঠোর করতে আহ্বান করেছে. দেখা যাচ্ছে যে, এটা একাংশে পরিসংখ্যাণ অনুযায়ী এই দলের জনপ্রিয়তা সামান্য হলেও বৃদ্ধি করতে সাহায্য করেছে. আগষ্ট মাসে বছরের শুরুতে শতকরা এক শতাংশের জায়গায় তা তিন শতাংশ হয়েছে. যদিও ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া দলের শতকরা ৫৪ ভাগ জনপ্রিয়তার তুলনায় এটা অতি সামান্য ও তুলনার অযোগ্য. পাঁচ শতাংশের বাধাও বর্তমানে বাম পন্থী লিবারেল দলের জন্য অতিক্রম অসম্ভব "রাশিয়ার দেশপ্রেমী দল" ও "ইয়াবলকা" (আপেল দল) দলের জন্য. আগষ্ট মাসে তারা মাত্র শতকরা এক শতাংশ জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পেরেছে.

রাশিয়ার রাজনৈতিক পট চিত্রের বাম পন্থী দিক সম্বন্ধে যা বলা যেতে পারে, তা হল এই দিকের রেটিং স্থায়ী ও জনগনের শতকরা ১৮ ভাগ এদের সমর্থন করে থাকেন, আর এই লোকেরা দেখা যাচ্ছে যে, পাল্টাচ্ছেন, এই কথা উল্লেখ করে জাতীয় স্ট্র্যাটেজি ইনস্টিটিউটের সভাপতি মিখাইল রেমিজোভ বলেছেন:

""রুশ প্রজাতন্ত্রের কমিউনিস্ট পার্টির" জন্য ভোটার আরও বেশী করে নানা রকমের হয়েছে. এটা আর আগের মতো শুধু সোভিয়েত দেশের জন্য নস্টালজিয়া গ্রস্ত পেনশন ভোগী লোকেরা নন. তাদের সম্ভাব্য ভোটদাতাদের মধ্যে নতুন অখুশী লোকেরা উদ্ভূত হয়েছে. অখুশী লোকেদের ভোটের অধিকাংশই চলে যায় কমিউনিস্ট পার্টির দখলে, যারা দেশে প্রধান বিরোধী পক্ষ হয়েছে".

লিবারেল ডেমোক্র্যাট দল বর্তমানের পরিসংখ্যানে তৃতীয় স্থানে রয়েছে, তাদের শতকরা তের ভাগ জনপ্রিয়তা. তারা নতুন পার্লামেন্টে যে জায়গা পাবেই তা বলা যেতে পারে নিশ্চিত. আর এই বারের প্রচারের একটা আগ্রহের বিষয় হল নতুন লোকসভাতে বাম ও কেন্দ্র পন্থী "ন্যায় সঙ্গত রাশিয়া" দল জায়গা পাবে কি না, এই কথা মনে করেছেন মিখাইল রেমিজোভ. তাদের লক্ষ্য সেই সমস্ত ভোটার – যাদের কোন নির্দিষ্ট আদর্শ নেই এমন মধ্য বিত্ত শ্রেনী – কিন্তু বর্তমানের রাশিয়াতে এদের সংখ্যা খুব বেশী নয়.

0রাশিয়া দ্যুমার নিম্ন কক্ষে ৪৫০ সদস্য বিশিষ্ট সভায় ষষ্ঠ বারে দল গুলির তালিকা অনুযায়ী নির্বাচন হবে. এই ক্ষেত্রে প্রতিটি দলই তাদের পাওয়া ভোট অনুযায়ী সদস্য পদ পাবে. বর্তমানে সমস্ত দল নির্বিশেষেই প্রাক্ নির্বাচনী সম্মেলনের জন্য তৈরী হওয়া চলছে – বাস্তবে তা হবে প্রায় একই সময়ে সেপ্টেম্বর মাসে. সেই সম্মেলন গুলিতে নির্বাচনের জন্য প্রার্থী তালিকা প্রস্তুত হবে. আর লোক সভা নির্বাচনের অব্যবহিত পরেই বাস্তবে একেবারে শ্বাস ফেলার সময় না রেখেই দেশে শুরু হতে চলেছে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আয়োজন.