রাশিয়ার রাজনৈতিক দলগুলো পার্লামেন্ট নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত নিচ্ছে।প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ ভোট প্রদানের দিনক্ষন হয়ত আগামী ২৯ আগষ্ট সোমবার ঘোষণা করবেন।

চলতি সপ্তাহে দ্য ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি ও সর্বরাশিয়া জাতীয় ফ্রন্ট নিজেদের নির্বাচনী নেতা মনোনায়ন করেছে।সর্ব প্রথম রাশিয়ায় পার্লামেন্ট নির্বাচনের জন্য  নেতা মনোনায়ন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল ২০০৭ সালে।এ বছর মনোনায়ন কার্যক্রমের আংশিক ভোটাভুটির ফলাফলে শুধুমাত্র সমাজ বিজ্ঞানীরাই নয় বরং দ্য ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি’র সভাপতি ভ্লাদিমির পুতিনও সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।তিনি বলছেন, ‘প্রকৃতপক্ষে জাতীয় বৃহত স্বার্থে আমরা রাশিয়ার সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি প্রসারিত করতে পেরেছি।আমি মনে করি এ বিষয়টি অনেক গুরুত্বপূর্ণ।২০০৭ সালের তুলনায় এ বছর দলের নেতা মনোনায়ন কার্যক্রমে ৩ গুন বেশী প্রর্থী অংশ নিয়েছে।এদের মধ্যে ৬০ ভাগ প্রার্থীরা হচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক সংস্থার’।

রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমীর পুতিন পার্লামেন্টে এই সংক্রান্ত আইন সংশোধন করে দলের নেতা মনোনায়ন প্রক্রিয়া প্রতিটি দলের জন্যই চালু করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন।এই কারণেই দলের নেতা মনোনায়নের ফলাফল ও এর প্রতি জনগনের আগ্রহ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।তবে রাশিয়ার অন্যান্য রাজনৈতিক দল যেমন রুশ কমিউনিস্ট পার্টি, দ্য ফেয়ার রাশিয়া পার্টি ও ইয়াব্লোকো গোষ্ঠী দলের শীর্ষ নেতারা দলের নেতা মনোনায়নের উন্মুক্ত কার্যক্রমকে পার্টির জন্য ‘নেতিবাচক প্রভাব’ বলে উল্লেখ করেছেন।ভ্লাদিমীর পুতিন তাদের এই বক্তব্যের প্রতিত্তরে বলছেন,আমি মনে করি যারা দলের নেতা মনোনায়নের বিপক্ষে অবস্থান করছেন তারা দলে নিজের স্থান রক্ষা নিয়ে ব্যবসা করেন এবং তারাই দলের অভ্যন্তরে গনতন্ত্রের ধারা বৃদ্ধি করতে চান না।সামগ্রিক অর্থে দেশের গনতন্ত্র।তবে,এটি একদমই তাদের নিজেদের ব্যপার।

অন্য যে সব উত্স দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সহায়ক হিসেবে কাজ করতে পারে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের সাইটসমূহ।সামগ্রিকভাবেই বলা যেতে পারে যে,চুড়ান্ত ভোটের জন্য দলের নেতা নির্বাচন ও ইন্টারনেট উভয়ই দলের রেটিং বাড়ায়।তাই সঙ্গত কারণেই রুশ কমিউনিস্ট পার্টি ও  দ্য ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি বেশ সক্রিয় ভুমিকা পালন করছে।তবে দ্য ফেয়ার রাশিয়া পার্টি ও রাইট উইঙ্গ রাইট পার্টির ক্ষেত্রে এ বিষয়ে তেমন কোন কর্মসূচি গ্রহন করে নি।

এদিকে লিবেদা সেন্টারের সর্বশেষ জরিপে বলা হয় যে,আগামী পার্লামেন্ট নির্বাচনে  দ্য ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি ৬৪ শতাংশ,রুশ কমিউনিস্ট পার্টি ২২ শতাংশ ও ১৫ শতাংশ আসন পেতে পারে লিবেরাল ডেমোক্রেটিক পার্টি।এছাড়া বাকী আসনগুলো পেতে পারে ইয়াব্লোকো গোষ্ঠী,রাইট উইঙ্গ রাইট পার্টি,ও পেটরিওট রাসিয়া ।