১৯ জনকে গ্রেপ্তার করাও হয়েছে সোমবার ইন্দোনেশিয়ার পূর্বে, এই খবর দিয়েছে জাতীয় সংবাদ সংস্থা অন্তরা. মোরোভালি ও কেন্দ্রীয় সুলাভেসি অঞ্চলের বহু শত লোক মলোতভ ককটেল ছুঁড়ে জ্বালিয়ে দিয়েছে তিয়াকা দ্বীপের খনিজ তেল উত্পাদনের খনি, অফিস ও বাড়ী ঘর ভাঙচুর করেছে. এই তৈল কূপ দেশের জাতীয় সংস্থা পেট্রামিনা ও স্থানীয় একটি কোম্পানীর যৌথ সম্পত্তি. জনতা যখন কিছু সেনা ও পুলিশকে বন্দী করে, তখনই পুলিশ সাবধান করে গুলি চালায়, তারপরে জনতা না থামায়, তারা গুলি চালায় ও অকুস্থলেই একজন নিহত হয়. এই গোলমালের কারণ ছিল কোম্পানী দুটির পক্ষ থেকে বহু বছর আগে থেকেই এখানে পরিকাঠামো ও বিদ্যুত সরবরাহের আশ্বাস দিয়েও কার্যক্ষেত্রে কিছুই না করা, পরিস্থিতি এখানে এখনও অশান্ত.