"রসআবারোনএক্সপোর্ট" সংস্থা ইন্দোনেশিয়া, জর্ডন, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনায় সরকারি ঋণের বিনিময়ে অস্ত্র সরবরাহ করার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করছে. এই বিষয়ে সাংবাদিকদের কাছে বৃহস্পতিবারে "রসআবারোনএক্সপোর্ট" সংস্থার ভাইস ডিরেক্টর ভিক্তর কমার্দিন জানিয়েছেন. শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ রাশিয়া হেলিকপ্টার পাঠাতে চেয়েছে. আলোচনা হচ্ছে সাঁজোয়া গাড়ী ও অস্ত্র সামুদ্রিক উপকূল রক্ষী বাহিনীকে দেওয়ার. জর্ডন নিয়ে কথা বলতে গিয়ে ভিক্তর কমার্দিন মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, এই দেশ রাশিয়ার কাছ থেকে দুটি ইল – ৭৬ পরিবহন বিমান কিনেছে. এখন কথা হচ্ছে গ্রেনেড লঞ্চার নিয়ে. ইন্দোনেশিয়াতে "রসআবারোনএক্সপোর্ট" হেলিকপ্টার পাঠানো নিয়ে কাজ করে, তাছাড়া পরিবহনের বিমান ও ধ্বংস করার ব্যবস্থাও পাঠায়. আর্জেন্টিনা রাশিয়ার কাছ থেকে মি – ১৭১ ধরনের হেলিকপ্টার কিনতে চেয়েছে, যাতে আন্টার্কটিকা অঞ্চলে মাল পরিবহন করা সম্ভব হয়, বলেছেন কমার্দিন.