মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ঋণ নেওয়ার রেটিং কমে যাওয়া বিশ্বের সমস্ত শেয়ার বাজারেই প্রভাব ফেলেছে, যদিও বিশেষজ্ঞদের ধারণা এটি ক্ষণস্থায়ী ঘটনা. বিশ্ব অর্থনৈতিক সঙ্কটের পরে ২০০৯ সাল থেকে বাজার সুস্থ হওয়া শুরু করার পরে বর্তমানে পতন সবচেয়ে খারাপ ও সোমবার তা চলছে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকার সমস্ত শেয়ার বাজারেই. মার্কিন অর্থনীতির সন্দেহজনক অবস্থায় বিনিয়োগকারীরা নেতিবাচক মনোভাবের পরিচয় দিয়েছেন, আর তারই সঙ্গে আন্তর্জাতিক অর্থনীতির স্বাভাবিক হওয়া সম্বন্ধেও. এই কথা মনে করেছেন আরটিও গ্লোবাল ম্যানেজমেন্ট কোম্পানীর দিমিতর গেনভ. এই অঞ্চলের সম্মিলিত শেয়ার বাজার সূচক এশিয়া প্যাসিফিক শতকরা তিন ভাগ নেমে গিয়েছে – যা এক বছরেরও বেশী সময়ের মধ্যে ন্যূনতম স্তরে. সুইজারল্যান্ডের ফ্রাঙ্কের সঙ্গে বিচারে ডলার সোমবার ঐতিহাসিক ভাবে সবচেয়ে কম দাম – ৭৪, ৮৫ সেন্টিম কে অতিক্রম করেছে. এক ট্রয় আউন্স সোনা অবিলম্বে বিক্রয়ের ক্ষেত্রে দাম ১৭০০ ডলারের কাছে হয়েছে, যা আবারও ইতিহাসে নতুন রেকর্ড করেছে. স্ট্যান্ডার্ড এন্ড পুয়োরস্ সংস্থা আমেরিকার সমস্ত বাজার বন্ধ হওয়ার পরে শুক্রবারে আমেরিকার দীর্ঘস্থায়ী রেটিং সর্ব্বোচ্চ AAA থেকে AA+ করেছে. এই পূর্বাভাসও নেতিবাচক.