বিরোধী জাতীয় সভার নিরাপত্তা সংস্থার দল লিবিয়ার বেনগাজি শহরে রবিবারে গাদ্দাফির সশস্ত্র সমর্থকদের বিদ্রোহ দমন করেছে. জামাহিরির নেতার সমর্থকেরা এই শহরের একটি সেনা নিবাস দখল করে নিয়েছিল. বিরোধী পক্ষের এক নেতা আলি আল-এইসাভি জানিয়েছে যে, এই যুদ্ধে একদল যোদ্ধাকে ধ্বংস করা সম্ভব হয়েছে. তাঁর কথামতো, এই দলের লোকেরা বৃহস্পতিবারে বিরোধী পক্ষের সামরিক বাহিনীর নেতা আবদেল ফাতহা ইউনুস কে মারার চক্রান্ত করেছিল. আল- জাজিরা টেলিভিশন চ্যানেল জানিয়েছে যে, নিহত ইউনুস এর জায়গা নেবে সুলেইমান মাহমুদ আল- অবৈদি. একই সময়ে ত্রিপোলি থেকে ১৬০ কিলোমিটার দূরের শহর জ্লিতেন দখলের জন্য বিদ্রোহী পক্ষ লড়াই শুরু করেছে. এই শহর দখল করতে পারলে মিসুরাত থেকে ত্রিপোলি যাওয়ার রাস্তায় বিরোধীরা এগোতে পারবে.