সম্প্রতি কংগ্রেসে গৃহীত রাষ্ট্রীয় ঋণ হ্রাসের খসড়া প্রস্তাব মার্কিনী সেনেট বাতিল করেছে বলে রয়টার সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে. গত শুক্রবার কংগ্রেস রিপাবলিক পার্টির সদস্য জন বোনারের প্রস্তাব ২১৮ ভোটে অনুমোদন করে, বিরুদ্ধে ২১০ টি ভোট পড়েছিল. বোনারের প্রস্তাব মতো আগামী ১০ বছরে রাষ্ট্রীয় ব্যয় ৯১৫ বিলিয়ন ডলার কমাবার পরিকল্পনা ছিল. প্রত্যাশা মতোই সেনেট, যেখানে ডেমোক্রেটিক পার্টির সংখ্যাগরিষ্ঠতা, ৫৯ বনাম ৪১ ভোটে বোনারের প্রস্তাব খারিজ করে দিয়েছে. কংগ্রেস এবং সেনেটে গতকাল ভোটাভুটি হয়. আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে মার্কিনী কংগ্রেস রাষ্ট্রীয় ঋণের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হলে মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্র দেউলিয়া ঘোষিত হবে. রাষ্ট্রীয় ঋণের উর্দ্ধসীমা বাড়িয়ে ২রা অগাস্টের আগে ১৪,৩ ট্রিলিয়ন ডলারের বেশি করবার প্রস্তাব দেন বারাক ওবামা. এর প্রাক্কালে তিনি কংগ্রেসের সদস্যদের কাছে রাষ্ট্রীয় ঋণের নতুন উর্দ্ধসীমা দ্রুত অনুমোদন করবার আহ্বাণ জানান. তিনি স্মরন করিয়ে দেন, যে এই প্রশ্নে বিতর্ক চালাবার মত সময় আর নেই. সেনেটে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান হ্যারি রিড ঘোষণা করেছেন, যে বাজেটের ঘাটতি কমাবার তার নিজস্ব প্রস্তাব তিনি পুণর্বিবেচনা করেছেন এবং রিপাবলিক পার্টির সাথে সমঝোতায় আসতে প্রস্তুত. রিডের প্রস্তাবমাখিক আগামী রবিবারে ভোটাভুটি হওয়ার কথা. যদি ডেমোক্র্যাটরা সবাই প্রস্তাবের স্বপক্ষে ভোট দেয়, তাহলে তারা পাবে ৫৩ টি ভোট, এবং তাদের দরকার হবে আরও ৭ টি ভোটের. খসড়া আইন অনুমোদন করবার জন্য সেনেটে ৬০ টি ভোটের প্রয়োজন. এটা সম্ভবকর, কারন রিপাবলিক পার্টির কিছু সদস্য বোনারের প্রস্তাবের বিরুদ্ধে রায় দিচ্ছেন. গত শুক্রবার বিশ্বব্যাঙ্কের প্রধান রবার্ট জেল্লিক বলেছেন, যে মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্র আগুন নিয়ে খেলছে. সারাবিশ্বের নেতৃবৃন্দ ওয়াশিংটনের রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার অক্ষমতায় যারপরোনাই বিস্মিত.