তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রেজেপ এরদোগান ঘোষণা করেছেন, যে নরওয়ের বিয়োগান্তক ঘটনা প্রমাণ করলো, যে ইউরোপে ইসলামবিরোধী মনোবৃত্তি কতখানি নিরর্থক এবং বিপজ্জনক. তিনি জোর দিয়ে বলেন, যে নরওয়েতে অসংখ্য মানুষের হত্যাকান্ডকে কোনোভাবেই মামুলি ঘটনা বলে আখ্যা দেওয়া যায় না. এরদোগান বিশ্ব জনসমাজের উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বাণ জানিয়েছেন. গত শুক্রবার অসলোয় এবং উটোই দ্বীপে দুটি জঙ্গী হামলায় সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী ৭৬ জন নিহত হয়েছে. উভয় অপরাধেই অভিযুক্ত ৩২-বছর বয়সী নরওয়ের নাগরিক এ্যানডার্স ব্রেইউইক. ঐ সন্ত্রাসবাদীর বক্তব্য হল – যে নরওয়ে সহ গোটা ইউরোপকে অভিবাসীদের ক্রমবর্ধমান স্রোত, বিশেষতঃ মুসলিমদের স্রোত থেকে বাঁচানোর জন্যই নাকি সে এই অপকর্ম করেছে.