ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস. কৃষ্ণ বলেছেন যে, দিল্লি ও ইস্লামাবাদের মাঝে সম্পর্ক সঠিক দিকে বিকশিত হচ্ছে. বুধবার ভারত ও পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস. কৃষ্ণ এবং হিনা রব্বানী খারের আলাপ-আলোচনা হয়েছে ভারতের রাজধানীতে. কূটনীতিজ্ঞরা একমত হয়েছেন যে, এ অঞ্চলে পারমাণবিক অস্ত্রাধিকারী দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের মাঝে উত্তেজনা হ্রাসের দিকে এগিয়ে যাওয়া প্রয়োজন. এ সাক্ষাতের ফলাফলের ভিত্তিতে দিল্লি ও ইস্লামাবাদ দু দেশের সম্পর্কে কিছু কিছু ভিসা ও বাণিজ্য সংক্রান্ত সীমাবদ্ধতা লাঘব করার ব্যাপারেও সম্মত হয়েছে, বলেন ভারতীয় কূটনীতিজ্ঞ. ভারত ও পাকিস্তান শান্তি-সংলাপ পুনরারম্ভ করেছে ফেব্রুয়ারী মাসে. তা স্থগিত রাখা হয়েছিল ২০০৮ সালে ভারতের মুম্বাই শহরে সন্ত্রাসের পরে, যাতে মারা গিয়েছিল ১৬৬ জন. ভারত তার আয়োজনের জন্য দোষ দিয়েছিল পাকিস্তানে ঘাঁটি গেড়ে থাকা ইস্লামপন্থী সংস্থাগুলিকে. ভারত ও পাকিস্তানের মাঝে সঙ্ঘর্ষের প্রধান কারণ হিসেবে বিবেচনা করা হয় কাশ্মীর অঞ্চলের উপর অধিকারকে কেন্দ্র করে বিতর্ক.