শার্ম-এশ-শেখে, যেখানে মিশরের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হোসনি মুবারক রয়েছেন, হাসপাতালের প্রধান চিকিত্সক এ খবর অস্বীকার করেছেন যে, তাঁর রোগী নাকি কোমা-র অবস্থায় রয়েছেন. চিকিত্সক এভাবে মুবারকের উকিল ফ্রেড আদ-দিবের বিবৃতি খন্ডন করেছেন. রবিবার সন্ধ্যায় উকিল ঘোষণা করেন যে, মিশরের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির শারীরিক অবস্থার তীব্র অবনতি ঘটেছে, মুবারক “সম্পূর্ণ কোমা-র” অবস্থায় রয়েছেন. হাসপাতালের পরিচালকমন্ডলীর কথায়, মুবারকের অবস্থা – স্থিতিশীল. অন্যান্য খুঁটিনাটি জানানো হয় নি. আগে মিশরের প্রাক্তন নেতার উকিল জানিয়েছিলেন যে, মুবারক ক্যান্সারে ভুগছেন এবং রোগ বাড়ছে. ২০১০ সালের মার্চে জার্মানির হাইডেলবার্গ শহরের হাসপাতালে মুবারকের অপারেশন করা হয়. সরকারী তথ্য অনুযায়ী, তাঁর গল-ব্লাডার এবং পেটে একটি পলিপ কেটে বাদ দেওয়া হয়. উকিল নিশ্চয়োক্তি করেন যে, অপারেশনের সময় ক্যান্সার কেটে বাদ দেওয়া হয়. প্রায় ৩০ বছর মিশরের শাসন করা হোসনি মুবারক এ বছরের ১১ই ফেব্রুয়ারী পদত্যাগ করতে বাধ্য হন ১৮ দিন ব্যাপী গণ আন্দোলনের পরে. মিশরের প্রধান অভিশংসক দপ্তর প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ও তাঁর দুই ছেলেকে গ্রেপ্তার করার সিদ্ধান্ত নেয় মিছিলকারীদের উপর গুলিবর্ষণের অভিযোগের তদন্তের কাঠামোতে, এবং বেআইনীবাবে ধনী হওয়া ও ব্যক্তিগত উদ্দেশ্যে শাসন ক্ষমতা ব্যবহারের অভিযোগে.