লিবিয়ার বিদ্রোহীদের অন্তর্বর্তী জাতীয় পরিষদ বুধবার ঐক্যবদ্ধ সেনাপতিমন্ডলী গঠনের কথা ঘোষণা করেছে. প্রাক্তন জাতীয় সৈন্যবাহিনী এবং বিপ্লবী শক্তি সঙ্ঘের সৈনিক ও অফিসারদের বিরোধী সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে আনা হয়েছে. লিবিয়ার বিদ্রোহীদের অধিনায়ক ফাউজি বুকাতিফ বলেন যে, ঐক্যবদ্ধ অধিনায়কমন্ডলীর গঠন সমস্ত শক্তির কার্যকলাপের সঙ্গতি সাধনের সুযোগ দেবে. এদিকে, ত্রিপোলির দক্ষিণে জেবেল-নেফুস পর্বতাঞ্চলে তত্পর বিরোধীরা শিগগিরই রণনৈতিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ গারিয়ান শহরে আক্রমণ শুরু করার পরিকল্পনা করছে. তাতে সাফল্য অর্জনের ক্ষেত্রে বিদ্রোহীদের বাহিনী ত্রিপোলি থেকে মাত্র ৮০ কিলোমিটারের দূরত্বে ঘাঁটি পাতবে. তারা লিবিয়ার রাজধানীর দিকে যাওয়া একটি প্রধান সড়ক নিয়ন্ত্রণ করবে, জানিয়েছে বৃটিশ পত্রিকা “ডেইলি টেলিগ্রাফ”. পত্রিকাটি জোর দিয়ে লিখেছে যে, এ কর্তব্য খুবই উচ্চাকাঙ্ক্ষাপূর্ণ, কারণ গারিয়ান শহর রক্ষা করছে মুয়ম্মর গদ্দাফির বিশ্বস্ত কয়েক হাজার সৈনিক.