রাশিয়ার বিজ্ঞানীরা গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেমস GLONASS ও GPS এর জন্য অনন্য উপকরণ তৈরী করেছেন।এটি পূর্বের তুলনায় বস্তুর সঠিক অবস্থান দশ গুন বৃদ্ধি করতে সক্ষম।রাশিয়ার এই উন্নত প্রযুক্তি যা প্রযুক্তি রপ্তানীতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করবে এবং সেই সাথে দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার  নিরাপত্তা বাড়াতে সাহায্য করবে বলে মনে করছেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা।

নতুন এই উদ্ভাবনা যা রাশিয়ার রাজধানীর কোন ইন্সটিটিউটে পরিচালনা করা হয়নি বরং তা সাইবেরিয়ার শহর ওম্সকে’র একটি ক্ষুদ্র উদ্ভাবনী কেন্দ্রের গবেষণার ফসল।নতুন এই ডিভাইস নিকটতম সেন্টিমিটার থেকে স্থানাঙ্ক নির্ণয় এবং সেই সাথে  মিলিমিটার পর্যন্ত অতিরিক্ত ডাটা প্রসেসিং করতে পারে।

একসারি স্টেশোনগুলোর সাথে এই ডিভাইস যোগাযোগ করা ছাড়া GLONASS ও GPS রিসিভার যা উপগ্রহের সঙ্গে সংযোগ রক্ষা এবং কনট্রোলারে মসৃণ অপারেশন প্রদান করতে পারে।বিশেষ প্রয়োজনে সংকেত আদান-প্রদান করা যাবে ইন্টারনেট এমনকি সাধারণ মোবাইল ফোনের মাধ্যমেও করা সম্ভব।

নতুন এই প্রযুক্তি যা সেতু রক্ষনাবেক্ষন,বাঁধ,বিদ্যুতের লাইন এবং অন্যান্য সুবিধার জন্য ব্যবহার করা যাবে। এমনকি এটি ভূমিকম্পের পূর্বাভাস জানাতেও সাহায্য করবে ।

এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে সেন্ট-পিটার্সবার্গের জাতীয় তথ্য ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোরেক্টর আলেক্সেই শেলকোবস্কী বলেছেন,নতুন প্রযুক্তি যা আঞ্চলিক পর্যায়ের ছোট ও মাঝারি ব্যাবসা ক্ষেত্রে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে পারে।এই ধরনের উদ্ভাবনী যা নতুন বাজার তৈরীতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আমাদের দেশে পজিশনিং সিস্টেম যা একটি রাষ্ট্র হিসেবে বিকশিত হয়েছে এবং এই ধরনের কাজ জাতীয় বাজারের রুপ দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে কাজ এগিয়ে চলছে।এই প্রক্লপের বানিজ্যিক দৃষ্টিকোন থেকে যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে যা আমাদের দেশে ইতিমধ্যে চালু হয়েছে।যেমন-আমরা GLONASS তৈরী করেছি যা রাষ্ট্রের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজের সমাধান করেছে।

আসলেই নতুন প্রযুক্তির চাহিদা কতটুকো রয়েছে তা সুনির্দিষ্ট বর্ননা থেকে অনুমান করা যাচ্ছে। ওমস্ক শহরের উদ্ভাবকদের এই প্রযুক্তি ইতিমধ্যে সাইয়ানা সুশেনস্কী বিদ্যুত উত্পাদন কেন্দ্রে স্থাপন করা হয়েছে।