গদ্দাফির মেয়ে আয়েশার কৌঁসুলি ইজাবেল কুতান-পেইর জানিয়েছেন, যে প্যারিসের প্রসিকিউটর দপ্তর ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মামলা খাঁড়া করতে অস্বীকার করেছে. আয়েশা গদ্দাফি ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি নিকোলা সারকোজি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ঝেরার লংগে এবং ফরাসী সেনাবাহিনীর হাই-কম্যান্ডের বিরুদ্ধে তার পরিবারের ৪ জন সদস্যের মৃত্যুর অভিযোগে মামলা দায়ের করতে চেয়েছিলেন.

 ন্যাটো কতৃক লিবিয়ায় বোমাবির্ষণকালে গদ্দাফির কনিষ্ঠ পুত্র, তিন নাতি এবং পরিবারের বন্ধু ও প্রতিবেশীরা মারা যায়. তবে ফরাসী আইন অনুযায়ী, যে সৈন্যরা দেশের সীমানার বাইরে উচ্চ কতৃপক্ষের আদেশ মেনে মানুষ হত্যা করতে বাধ্য হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারী মামলা খাঁড়া করা যায়না.

 আয়েশার কৌঁসুলির মতে, কোনো সমালোচনাই এই আইনের পক্ষে যথেষ্ট নয়.