মিশরের কর্তৃপক্ষ বুধবার গাজা অঞ্চলে মানবতাবাদী সাহায্যের প্রায় ৫ টন ওষুধপত্র রাফাক সীমান্ত চৌকি হয়ে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে. মিশরের চিকিত্সক সমিতির দেওয়া এ সাহায্যের মধ্যে রয়েছে গাজা অঞ্চলে প্রায় পাওয়া যায় না এমন ২৪টি ওষুধ. মিশরের কর্তৃপক্ষ দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হোসনি মুবারকের শাসনের উত্খাতের পরে এই প্রথম গাজা অঞ্চলে মানবতাবাদী সাহায্য পাঠাচ্ছে. জুন মাসে গাজা অঞ্চলের কর্তৃপক্ষ সতর্ক করে দিয়েছিল যে, ওষুধপত্রের অভাবের জন্য কয়েকটি সার্জিকাল অপারেশন স্থগিত রাখা হয়েছে. ১০০টিরও বেশি ধরণের প্রধান প্রধান ওষুধের অভাব রয়েছে. তাছাড়া, মিশরের কর্তৃপক্ষ বুধবার মালয়েশিয়ার জাহাজ থেকে গাজা অঞ্চলের জন্য ৩২ টন মানবতাবাদী সাহায্যের মালপত্র খালাস করেছে. সাতটি ট্রাকের সারি গাজা-র দিকে পাঠানো হয়েছে ইস্রাইলের ভূভাগ হয়ে.