লিবিয়ার নেতা মুয়ম্মর গদ্দাফি নিরাপত্তার গ্যারান্টির বিনিময়ে শাসন ক্ষমতা থেকে সরে যেতে সম্মত হয়েছেন. ন্যাটো জোটের কিছু সদস্য, বিশেষ করে ফ্রান্স তাঁকে এমন গ্যারান্টি দিতে পারে, মঙ্গলবার জানিয়েছে রাশিয়ার “কমের্সান্ত” পত্রিকা. নিরাপত্তার গ্যারান্টির বিনিময়ে শাসন ক্ষমতা ত্যাগ করার ব্যাপারে গদ্দাফির প্রস্তুতি সম্পর্কে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন রাশিয়ার নেতৃবৃন্দের এক উচ্চপদস্থ উত্স. তাঁর কথায়, গদ্দাফির সাথে আপোষ করতে সবচেয়ে বেশি প্রস্তুত ফ্রান্স. প্যারিস গদ্দাফি ও তাঁর পরিবারের অ্যাকাউন্টের একাংশ সক্রিয় করতেও প্রস্তুত. লিবিয়ার কর্নেলের শান্তিপূর্ণভাবে শাসন ত্যাগ করার ক্ষেত্রে তাঁর হেগ ট্রাইব্যুনাল এড়ানোতেও ফ্রান্স সাহায্য করারও প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে. আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালত গত সপ্তাহে গদ্দাফিকে গ্রেপ্তারের পরোয়ানা জারি করেছিল. তাছাড়া, লিবিয়ার নেতা যাতে দেশেই থাকতে পারেন সে বিষয়েও আলোচনা চলছে. এর প্রাক্কালে বিরোধী জাতীয় পরিষদের নেতা মুস্তাফা আব্দেল জলীল “রয়টার” সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন যে, কর্নেল যদি জীবনের বাকি দিনগুলি লিবিয়ায় কাটাতে চান, তাতে বিদ্রোহীদের আপত্তি নেই.