আজ মরক্কোর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, যে সেদেশের প্রায় ৯৯ শতাংশ ভোটদাতা নতুন সংবিধানের স্বপক্ষে ভোট দিয়েছেন. স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিনিধিটি উল্লেখ করেন, যে এবার দেশের পক্ষে অত্যন্ত জরূরী গণতান্ত্রিক সংস্কারাবলী সাধন করা সম্ভব হবে. প্রায় ৭৩ শতাংশ নির্বাচক ভোটদানে অংশ নেন. নতুন সংবিধান অনুযায়ী, সংসদ ও প্রধানমন্ত্রীর হাতে যথেষ্ট ক্ষমতা দেওয়া হবে. বিচার বিভাগ স্বাবলম্বী হবে এবং নাগরিকদের মৌলিক সব অধিকার ও স্বাধীনতা সুনিশ্চিত করা হবে. তাছাড়াও সংবিধানে সামাজিক প্রশ্নাবলীর মীমাংসা ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও রয়েছে. আরবী ভাষার পাশাপাশি বেরবের ভাষাও সরকারি মর্যাদা পাবে. মরক্কোর রাজা ষষ্ঠ মুহাম্মেদ আরব দুনিয়ায় প্রথম জনতার দাবীতে সাড়া দিয়ে গণতান্ত্রিক পরিবর্তনের কাজে অগ্রণী হন. সেদেশে বসন্ত বিপ্লব নামাঙ্কিত গণঅভিযান অন্যান্য দেশের অনুপাতে তুলনামুনক ভাবে শান্তিপূর্ণভাবে সংগঠিত হয়.