কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ২২টি আন্তর্জাতিক বেসরকারি সংস্থা পরিবেশিত রিপোর্টে বলা হচ্ছে, যে ২০০৫ সালে উত্তর ও দক্ষিণ সুদানের মধ্যে শান্তিচুক্তি সাক্ষরিত হওয়ার পরে এই প্রথম সুদান গৃহযুদ্ধের দোরগোড়ায় পৌঁছেছে. রিপোর্টে বলা হচ্ছে উত্তর ও দক্ষিণের মধ্যে সম্পর্ক সংঘাতে পর্য়বসিত হতে পারে, যদি আন্তর্জাতিক জনসমাজ সমস্যা নিষ্পত্তির জন্য সঠিক স্ট্র্যাটেজি নির্ণয় না করে. রিপোর্ট প্রস্তুতকারীরা ঘোষণা করেছেন, যে গত জানুয়ারি থেকে মে মাসের মধ্যে সুদানের দক্ষিণাঞ্চলে মারামারিতে ১৪০০ জনেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিযেছে. রিপোর্টটি প্রস্তুত করেছে সুদান ও অন্যান্য আফ্রিকান দেশ, নিকট প্রাচ্যের দেশগুলি, ইউরোপ ও মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্রের একসারি বেসরকারি সংস্থা.