গত শুক্রবার মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্রের আদালত আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের ভূতপূর্ব প্রধান ডোমিনিক স্ত্রোস-কানকে গৃহবন্দী দশা থেকে মুক্তি দিয়েছে. গত ১৪ই মে নিউ-ইয়র্কের সোফিটেল হোটেলে চেম্বারমেডের লাঞ্ছনাহানির চেষ্টার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়. আদালত জানতে পেরেছে, যে ফরিয়াদী পক্ষ মিথ্যা সাক্ষ্য দেয়, যার ওপর নির্ভর করে গোটা অভিযোগ খাঁড়া করা হয়েছিল. কৌঁসুলি বেনজামিন ব্রাফম্যান বলেছেন, যে পরবর্তী ধাপ হওয়া উচিত-এই মামলা পুরোপুরি প্রত্যাহার করা. তবে মামলা এখনো তুলে নেওয়া হয়নি. প্রসিকিউটর দপ্তর জানিয়েছে, যে আফ্রিকান চেম্বারমেড জাল তথ্যাদি পেশ করে মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেযেছিল. আরও জানা গেছে, যে স্ত্রোস-কানের সাথে কথাবার্তা হওয়ার পরে মহিলা চুপচাপ পাশের ঘরটি সাফাই করতে যায়, এবং শুধু তার পরই অভিযুক্তের ঘরে এসে কান্নাকাটি শুরু করে ধর্ষণের অভিযোগ জানায়. অতঃপর ফরিয়াদী নিজেই এবার খুব সম্ভবতঃ আসামীর কাঠগড়ায় দাঁড়াবে অথবা তাকে দেশ থেকে বহিস্কার করা হবে. আদালত এই মামলার পরবর্তী শুনানীর দিন ধার্য করেছে আগামী ১৮ই জুলাই.