মিশরের “মুসলমান ভাইয়েরা” আন্দোলন সহযোগিতা সম্পর্কে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব সমর্থন করেছে. এ সম্বন্ধে জানিয়েছেন তাদের সরকারী প্রতিনিধি মাহমুদ গোজলান. তিনি বলেন, “আমরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃবৃন্দের সাথে সাক্ষাত্ করতে প্রস্তুত, যদি তাঁরা আমাদের মূল্যবোধ শ্রদ্ধা করেন”. এর প্রাক্কালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র সচিব হিলারী ক্লিন্টন বুদাপেস্টে জানান যে, বারাক ওবামার প্রশাসন “মুসলমান ভাইয়েরা” আন্দোলনের সাথে যোগাযোগ স্থাপনে আগ্রহী. এই বিরোধী আন্দোলন মিশরে বহু বছর ধরে নিষিদ্ধ ছিল, আর ওয়াশিংটন তাকে “কালো তালিকার” অন্তর্ভুক্ত করেছিল. সম্প্রতি মিশরের সামরিক পরিচালকমন্ডলী “মুসলমান ভাইয়েরা” আন্দোলনের প্রতিনিধিত্বকারী “মুক্তি ও ন্যায়” পার্টির কার্যকলাপ আইনসঙ্গত বলে স্বীকার করেছে.