মার্কিনী গোয়েন্দা উপগ্রহ গত ২৮শে জুন রাশিয়ার সঙ্গে সীমান্ত অভিমুখে একটি বিশেষ ট্রেনকে এগোতে দেখে. অনুমান করা হচ্ছে, যে সেই ট্রেনে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান কিম চেন ইর সওয়ার ছিলেন. কিণ্তু কিছুক্ষণ পরে ট্রেনটি থামে এবং রাশিয়ার ভূখন্ডে আর প্রবেশ করেনি. এ সম্পর্কে জানিয়েছে সিওলের সংবাদপত্র ‘Choson ilbo’. এ প্রসঙ্গে জাপানি ও দক্ষিণ কোরিয় সংবাদ মাধ্যমগুলি প্রচারিত বহু খবরের পাশাপাশি উক্ত সংবাদপত্রটি জানিয়েছে, যে চলতি সপ্তাহের শেষে ভ্লাদিভস্তোকে রাশিয়া ও উত্তর কোরিয়ার শীর্ষনেতাদের সাক্ষাত্কারের কথা ছিল, যা নাকি শেষমুহুর্তে বাতিল করা হয়. জাপানের কিওডো সংবাদসংস্থার খবরে প্রকাশ, যে কিম চেন ইরের স্বাস্থ্যের অবনতির কারনে পিয়ং-ইয়ংয়ের অনুরোধেই তা বাতিল করা হয়.

       কিণ্তু ‘Choson ilbo’ সংবাদপত্র আজ লিখেছে, যে দক্ষিণ কোরিয় সরকারের অনুমান, যে সাক্ষাত্কার বাতিল করার আসল কারন হল- দুই পক্ষ আলোচ্য বিষয়সূচী ও আলোচনার ধারা নিয়ে ঐক্যমত হতে পারেনি. তবে মস্কো বা পিয়ং-ইয়ং – কেউই সরকারি ভাবে বা অন্য কোনো সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়েও জানায়নি, যে এরকম সাক্ষাত্কার ঘটবার কথা ছিল.